দেশের বিপক্ষে পাকিস্তানের সমর্থকদের সেখানেই পাঠিয়ে দেওয়া হোক

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় রবিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২১
  • ২৬ বার পড়া হয়েছে

করো’না ম’হামারির কারণে দীর্ঘদিন পরে আবারও মাঠে দর্শক দেখা গেছে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচের মধ্যে দিয়ে। হোম গ্রাউন্ডে সিরিজ মানেই গ্যালারিতে পরিপূর্ণ থাকে স্বাগতিক দলের দর্শকে। বাংলাদেশের বেলায়ও এর ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু মিরপুরে পাকিস্তোনের বিপক্ষে টাইগারদের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে স্টেডিয়ামের দর্শক উল্লাস দেখে কিছু সময়ের জন্য মনেই হতে পারে, এটা ঢাকা না লাহোর!

হাসান আলী বাংলাদেশি ক্রিকেটারকে আউ’ট করলে বা শাদাব খান ছক্কা হাঁকালে দর্শকদের উ’ল্লাস দেখে বুঝার উপায় নেই এটা বাংলাদেশের মাঠ নাকি অন্য কোন দেশের মাঠ। শুধূ তাই নয়, প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মিরপুরের গ্যালারিতে পাকিস্তানি দর্শকদের পাশাপাশি বাংলাদেশি দর্শকদের হাতেও পাকিস্তানের পতাকা দেখা গেছে।

বিষয়টি দেখে হৃদয়েও র’ক্তক্ষরণ হয়েছে হয়েছে কোটি বাঙালির। এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ক্যান্টনমেন্ট ও খিলক্ষেত ডিএমপির এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম। স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, একটা বিষয় মাথা থেকে কোনোভাবেই সরছে না, একটা প্যাথেটিক লুজার কীভাবে বাংলাদেশের মাটিতে বেড়ে উঠে তাঁর পূর্বের পেয়ারা পাকিস্তানিদের পেয়ার মোহাব্বত না ভু’লতে পেরে,

পাকিস্তানের জার্সি পরিধান করে তাদের সমর্থন করে যায়! এর কাছে কী দেশ, মুক্তিযু’দ্ধ, সংগ্রাম, স্বাধীনতা এসবের কোনোই মূল্য নেই এই আজিব চিড়িয়া যে নিজ দেশের বিপক্ষে অবস্থানকারী পাকিস্তানকে সমর্থন করে, তাকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়া গেলে মনে হয় যথোপযুক্ত হতো!

এমনিতে কোনায়, কানায় পাকিস্তানের সমর্থনকারীর সংখ্যাও নেহায়েত কম নয় তথাপি নিজ দেশের বিপরীতে এরকম জ’ঘন্যভাবে হেসে পাকিস্তান সমর্থনকারী এই চিড়িয়ার মুখে এক দলা থু দিয়ে গেলাম!তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জয়ের আশা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত ৪ উইকেট হেরে যায় বাংলাদেশ।

শুক্রবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১০ ওভারে ৪০ রানে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। তবে শেষ ১০ ওভারে ৮৭ রান করায় স্কোর দাঁড়ায় ১২৭/৭। এই পুঁজি নিয়েও ভালোই ফাইট করে বাংলাদেশ। ২৪ রানে পাকিস্তানের মতো শক্তিশালী দলের প্রথম সারির ৪ উইকেট তুলে নেয় টাইগাররা।

কিন্ত ইনিংসের প্রথম দিকের পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা শেষ দিকে ধরে রাখতে না পারায় ৪ উইকেটে হেরে যায় টাইগাররা। ম্যাচ শেষে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন, টস জিতে আমার কাছে মনে হয়েছে প্রথমে ব্যাট করাই ভালো। তাই আগে ব্যাটিং নিয়েছি। কিন্ত আমরা ব্যাটিংয়ে শুরুটা ভালো করতে না পারলেও শেষ দিকে ভালো হয়েছে।

আমরা যদি এই উইকেটে ১৪০ রান করতে পারতাম তাহলে ম্যাচটায় আরো ভালো ফাইট দেওয়া যেতো জয়ের সুযোগ থাকত। অধিনায়ক আরও বলেন, ১২৭ রানের পুঁজি নিয়েও আমাদের বোলাররা শুরুতে ভালো করেছে। কিন্তু শেষ দিকে আমরা সেই পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারিনি। যে কারণে হারতে হয়েছে। আশা করি পরের ম্যাচে জয়ে ফিরতে পারব।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com