মাত্র পাওয়া :
চামচামি আমার রক্তে নেই: মিশা মালয়েশিয়ায় রিক্যালিব্রেশন কর্মসূচির অধীনে বিদেশী কর্মী নিয়োগের আহবান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হোটেলে কক্ষে স্বামীর লাশ রেখে দেবরের হাত ধরে উধাও স্ত্রী ডিসেম্বর-জানুয়ারির মধ্যে গণঅভ্যুথানের ডাক বিএনপির খালেদা জিয়া একটা অভিশপ্ত নাম, তার কী হয়েছে তাতে কিছু আসে যায় না: নৌ প্রতিমন্ত্রী ওমানের ডেন্টাল কলেজে প্রথম হলেন বাংলাদেশী কন্যা নিলুফা বাংলাদেশকে নিজেদের অংশ দাবি ভারতীয় নায়িকার নির্বাচনে জিতেও চা বেচবেন মাজেদা, পাচ্ছেন মানুষের ভালবাসা ‌‘খালেদা জিয়াকে বিষ প্রয়োগ করায় বিদেশ যেতে দেওয়া হচ্ছে না’ কক্সবাজারে চালু হলো ঝুলন্ত রেস্টুরেন্ট, ঘণ্টায় খরচ ৪ হাজার টাকা

আরব আমিরাতে শ্রমিকদের জন্য নতুন আইন জারি

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

সংযুক্ত আরব আমিরাত শ্রমবাজার ও উৎপাদনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে শ্রমিকবান্ধব নতুন শ্রম আইন পাস করেছে (ইউএই)। শ্রমিকদের সুবিধাজনক কর্মঘণ্টা, বেতনসহ ছুটি ও তিন বছরের চুক্তির সুযোগ রেখে নতুন শ্রম আইন পাস করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) সরকার। সোমবার থেকেই তা আইনে পরিণত হয়েছে, যা আগামী বছর ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট শেখ খালিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান এ সংক্রান্ত বিলে স্বাক্ষর করায় সোমবার (১৫ নভেম্বর) থেকেই তা আইনে পরিণত হয়েছে। আগামী বছর ২০২২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি থেকে কার্যকর হবে নতুন আইন।

প্রতিবেদন অনুযায়ী এখন থেকে কোনো পদে কোনো ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ওই ব্যক্তির সঙ্গে কমপক্ষে তিন বছরের জন্য চুক্তি করতে হবে এবং ন্যূনতম ১৬ বছর বয়স হওয়ার আগ পর্যন্ত কাউকে প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়া যাবে না।

এছাড়া ১৬ থেকে ১৯ বছর বয়সী তরুণ-তরুণীদের কোনো প্রতিষ্ঠানের কোনো পদে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু বিশেষ শর্ত পালনের বিধানও রাখা হয়েছে নতুন আইনে। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে ইউএইর মানবসম্পদ বিষয়ক মন্ত্রী ড. আব্দুল রহমান আল আওয়ার বলেন, প্রধানত দুটি কারণে এই নতুন আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।

এক, প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের ফলে বিশ্ব জুড়ে ‘কর্মস্থল’ ধারণার পরিবর্তন এসেছে। উন্নত প্রযুক্তির ফলে বর্তমানে বিশ্বের এক প্রান্তে বসেও অন্যপ্রান্তে অফিস করতে পারেন একজন কর্মী এবং দ্বিতীয় কারণ হলো করোনা মহামারি।

তাছাড়া, আগামী ৫০ বছর পর্যন্ত আমিরাতের শ্রমবাজার ও উৎপাদনে যেন কোনো বিঘ্ন না আসে- সেদিকেও মনোযোগ দেওয়া হয়েছে আইন প্রণয়নের সময়।

সংবাদ সম্মেলন আওয়ার বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হলো এমন একটি আকর্ষণীয় কর্মপরিবেশ তৈরি করা, যাতে বিশ্বের সেরা মেধাবী ও দক্ষ মানুষজন ইউএইতে কাজ করতে আগ্রহবোধ করে। পাশপাশি, আমরা দক্ষ কর্মী চাই এবং নতুন আইন আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক হবে।’নতুন এই আইন আমিরাতের সর্বত্র যেন মানা হয়, সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ মন্ত্রণালয় আগামী বছর ফেব্রুয়ারির আগেই নেবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন আমিরাতের মানবসম্পদমন্ত্রী।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com