আমি প্র’তারক নই- শিল্পা

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে

বান্দ্রা থানায় রাজ কুন্দ্রা, শিল্পা শেট্টি এবং কাশিফ খানের বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযুক্ত কাশিফ খান এসএফএল ফিটনেস ব্র্যান্ডের কর্ণধার। মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী এই তিন জনের বিরুদ্ধে ১.৫১ কোটি টাকার প্রতারণার অভিযোগ এনেছে।

মুম্বই পুলিশ সেই অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেন নিয়েছে। এবার নিজের বিরুদ্ধে ওঠা প্রতারণার অভিযোগ খারিজে মুখ খুললেন শিল্পা শেট্টি। তিনি বলেছেন, ‘তাঁর ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা হচ্ছে এবং তাঁকে টেনে নীচে নামানো হচ্ছে।‘

ট্যুইটারে পোস্ট করা বিবৃতিতে শিল্পা লেখেন, ‘সকালে ঘুম থেকে উঠেই দেখি আমার আর রাজের বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। কাশিফ খান, এসএফএল ফিটনেস সংস্থার কর্ণধারের নামেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

আমাদের সঙ্গে এই সংস্থার কোনও যোগাযোগ নেই। দেশব্যাপী ফিটনেস জিম খোলার গোটা উদ্যোগ নিয়েছিলেন কাশিফ। সেই সংক্রান্ত ব্যাঙ্কিং লেনদেনের এক্তিয়ার ছিল তাঁর হাতেই।

অর্থ সংক্রান্ত কোনও লেনদেনে এম্রা জড়িত ছিলাম না, কাশিফের থেকে কোনও টাকাও নিইনি। ২০১৪ সালে সেই সংস্থা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আমি ২৪ ঘণ্টাই পরিশ্রম করি।

তাই আমার নামে অপপ্রচার হলে খুব আঘাত পাই। আমার ভাবমূর্তি খারাপ করার চেষ্টা হচ্ছে এবং আমাকে নীচে নামানোর ছেস্ত চলছে। দেশের আইন অনুসরণকারী নাগরিক হিসেবে আমার অধিকার নিশ্চিত হওয়া উচিত।‘

এদিকে, ফের বিপাকে পড়তে পারেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি এবং রাজ কুন্দ্রা। মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী এই দু’জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন।

তারকা দম্পতির বিরুদ্ধে ১.৫১ কোটি টাকা তছরূপের অভিযোগ পুলিশের কাছে দায়ের হয়েছে। মুম্বই পুলিশ সূত্রে এমনটাই খবর।পুলিশ সুত্রের খবর, শুধু তারকা দম্পতি নয় আরও একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে অভিযোগ।

যদিও ২০১৪ সালের এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।পুলিশের কাছে দায়ের অভিযোগে বলা, কাসিফ খান নামে এসএফএল সংস্থার এই কর্ণধার অভিযোগকারীকে বলেছিলেন, তাঁর সংস্থায় ১.৫১ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে।

সেই বিনিয়োগের বিনিময়ে কোরেগাঁও এলাকায় স্পা, জিম খোলার ব্যাপারে কথা হয়েছিল। সেই সময় শিল্পা এবং রাজ কুন্দ্রাও তাঁকে এই বিনিয়োগের ব্যাপারে আশ্বস্ত করেছিলেন।

কিন্তু বিনিয়োগের পরেও প্রতিশ্রুতিমতো ব্যবসা চালু করতে পারেননি। এরপর থেকে টাকা ফেরত চাইলেও, বদলে এসেছে হুমকি। এমনটাই বান্দ্রা পুলিশ সূত্রে খবর। এরপরেই আইপিসির একাধিক ধারায় এই অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com