ছেলেদের সপ্তাহে একদিন স্কার্ট পরার নির্দেশ দিল স্কুল কর্তৃপক্ষ

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১২ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

আমরা যে পোশাকগুলো পরিধান করি সেগুলো বেশিরভাগই দুটি ভাগে বিভক্ত। একটি নারীদের পোশাক অন্যটি পুরুষের। লিঙ্গ সমতার বিচারে কোনো পোশাক নির্দিষ্ট করে কোনো বিশেষ লিঙ্গের জন্য নির্ধারিত নয় এমন বক্তব্যের ভিত্তিতে যুক্তরাজ্যের একটি স্কুলে ছেলেরাও চাইলে স্কার্ট পরতে পারবে।

হ্যাঁ, স্কার্ট কমাবে লিঙ্গ সমতা। শুনে অবাক লাগলেও লিঙ্গ সমতা ফেরাতে এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন যুক্তরাজ্যের আপিনঘ্যাম স্কুল কর্তৃপক্ষ। গত ৪ নভেম্বর থেকে স্পেনের একটি স্কুলের পদাঙ্ক অনুসরণ করে স্কুল চলাকালে সপ্তাহে একদিন স্কার্ট পরার নির্দেশনা দিয়েছে ছাত্রদের।

ক্যাসলভিউ প্রাথমিক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অভিভাবকদের ই-মেইল পাঠিয়ে জানায়, এই অংশগ্রহণের ক্ষেত্রে শিশুদের স্বস্তিও বিষয়টিও মাথায় আছে তাদের। তাই কেউ চাইলে স্কার্টের নিচে ট্রাউজার কিংবা লেগিংসও পরতে পারবে। কারো বাড়িতে স্কার্ট না থাকলে স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের স্কার্ট সরবরাহ করবে বলেও জানিয়েছে। পুরুষ শিক্ষকরাও চাইলে স্কার্ট পরতে পারবেন।

ঐ ই-মেইলে আরো বলা হয়েছে, পোশাকের কোনো লিঙ্গ নেই, এই বার্তা আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই। পছন্দের বিষয়টি আমাদের সবারই স্বাধীনভাবে প্রকাশ করা উচিত। অবশ্য স্কুল কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্ত সব অভিভাবক ভালোভাবে নেননি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে, লিঙ্গ বৈষম্য নিয়ে গতানুগতিক চিন্তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে স্পেনের এক শিক্ষক স্কার্ট পরে স্কুলে আসেন। গত বছর স্কার্ট পরে আসার জন্য এক ছাত্রকে স্কুল কর্তৃপক্ষ বহিষ্কারের পর এ নিয়ে আন্দোলন শুরু হয়।

দুই শিক্ষক ট্রাউজারের বদলে স্কার্ট পরে আসার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। এই আন্দোলনের নাম দেওয়া হয় পোশাকের কোনো লিঙ্গ নেই। ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এই আন্দোলন প্রতিদিনই জোরালো হচ্ছে।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com