মাত্র পাওয়া :
ক্ষমা চাওয়া না, তবে যেভাবে বিদেশে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে খালেদার মৃ’ত্যুশয্যায় হঠাৎ একি প্রশ্ন করে বসলেন খালেদা, এর জবাব কি কারো কাছে আছে? কোরআনের হাফেজদের জন্য খাবার ফ্রি করে দিল হোটেল মালিক বাবা মা ছিলেন চেয়ারম্যান, এবার মেয়েও হলেন চেয়ারম্যান শান্তির ধর্ম ইসলাম গ্রহণের আনন্দে কেঁদে ফেললেন ফরাসি তরুণী ভারত থেকে ভিক্ষা করতে বাংলাদেশে এসে আটক সীতারাম কখনো নারী কখনো পুরুষ বাংলাদেশি বিউটি ব্লগার সাদের আজব জীবন সৌদিতে নারী গৃহকর্মী পাঠানোর পর কেউ আর খোঁজ নেয় না মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশের কারাগারে বন্দী ২০ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি কুয়েতে সাবেক এমপি ও পাপলুসহ ৫ ভিআইপির ৭ বছরের সা’জা

এক বছর পর বা’জেয়াপ্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন রিয়া

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১১ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪২ বার পড়া হয়েছে

এক বছর ধরে নিজের সম্পত্তিতে দখল ছিল না তার। সম্প্রতি মাদক মামলা সংক্রান্ত (এনডিপিএস) আদালতের অনুমতিতে নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। বাজেয়াপ্ত করা ল্যাপটপ এবং ফোনও হাতে পেলেন প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের প্রেমিকা। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

এর আগে, ২০২০ সালের ১৪ জুন রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের। তারপর থেকেই তার মৃত্যুর কারণ নিয়ে তদন্ত শুরু হয়, তোলপাড় হয় গোটা ভারত।

তার মৃত্যুতে হাত আছে সন্দেহে প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করা হয়। এমনকি সুশান্তকে মাদক সরবরাহ করার অভিযোগে এক মাসের কারাবাসও করেন রিয়া।

এরপর গত বছর অক্টোবর মাসে জামিন পান তিনি। তবে ব্যাংক অ্যাকাউন্টসহ বাজেয়াপ্ত তার জিনিসপত্র থেকে যায় তদন্তকারীদের দখলেইসম্প্রতি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফেরত পাওয়ার জন্য আদালতে আবেদন জমা দিয়েছেন রিয়া।

সেখানে লেখা, ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর রিয়ার অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তিনি পেশায় একজন মডেল এবং অভিনেত্রী। নিজের জীবনযাপনের ভার তার নিজের হাতেই।

তা ছাড়া তার বাড়িতে এবং কর্মক্ষেত্রে যারা কাজ করেন, তাদের বেতনের জন্য অর্থ তোলা ও জমানোর জন্য নিজের অ্যাকাউন্টগুলোর প্রয়োজন রয়েছে রিয়ার।

এ ছাড়া, ভাই শৌভিক চক্রবর্তীর যাবতীয় খরচও রিয়াকেই সামলাতে হয়। তাই ১০ মাস ধরে অ্যাকাউন্টগুলো বাজেয়াপ্ত করে রাখায় রিয়ার জীবনযাপনে অসুবিধা হচ্ছে। এমনই একাধিক কারণের কথা উল্লেখ রয়েছে রিয়ার আবেদনে।

এ নিয়ে স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটার অতুল সারপান্ডে জানিয়েছেন, সুশান্ত-মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা ইতোমধ্যেই রিয়াকে তার জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু অন্য দিক থেকে নানা রকম আপত্তি এসেছে।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) প্রতিনিধি আইনজীবী অতুলের যুক্তি, যেহেতু মাদক-মামলার তদন্ত এখনও শেষ হয়নি, তাই এই মুহূর্তে বাজয়াপ্ত করা অ্যাকাউন্টগুলো ছেড়ে দিলে তদন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। যদিও আদালতের রায়ে শেষ মেশ রিয়ার পক্ষেই দাঁড়ায়।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com