মাত্র পাওয়া :
হোটেলে কক্ষে স্বামীর লাশ রেখে দেবরের হাত ধরে উধাও স্ত্রী ডিসেম্বর-জানুয়ারির মধ্যে গণঅভ্যুথানের ডাক বিএনপির খালেদা জিয়া একটা অভিশপ্ত নাম, তার কী হয়েছে তাতে কিছু আসে যায় না: নৌ প্রতিমন্ত্রী ওমানের ডেন্টাল কলেজে প্রথম হলেন বাংলাদেশী কন্যা নিলুফা বাংলাদেশকে নিজেদের অংশ দাবি ভারতীয় নায়িকার নির্বাচনে জিতেও চা বেচবেন মাজেদা, পাচ্ছেন মানুষের ভালবাসা ‌‘খালেদা জিয়াকে বিষ প্রয়োগ করায় বিদেশ যেতে দেওয়া হচ্ছে না’ কক্সবাজারে চালু হলো ঝুলন্ত রেস্টুরেন্ট, ঘণ্টায় খরচ ৪ হাজার টাকা বিয়ে না করেও একসাথে থাকছেন বাংলাদেশের যে তরুণ তরুণীরা সরকারকে একটি ধাক্কা দিতে পারলেই তার অস্তিত্ব টিকবেনা: ড. খন্দকার মোশারফ

অজয়ের কারণে এখনো একা তিনি!

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ৪১ বার পড়া হয়েছে

টাবুর আসল নাম তাবাসসুম ফাতিমা হাশমি। ১৯৮৫ সালে দেব আনন্দের ‘হাম নওজয়ান’ ছবি দিয়েই অভিনয়ে যাত্রা শুরু। এর আগে ৮২ সালে একটি ছবিতে এত অনুল্লেখ্য একটি রোলে অভিনয় করেছিলেন যে চরিত্রলিপিতে তাঁর নাম পর্যন্ত ছিল না।

নায়িকা হিসেবে তাঁর প্রথম ছবি সতীশ কৌশিক পরিচালিত ‘প্রেম’। এই ছবিটির চুক্তির শর্তের কারণে ৫ বছর অন্য কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতে পারেননি তিনি। মুখ্য অভিনেত্রী হিসেবে ১৯৯৪ সালে ঋষি কাপুরের বিপরীতে

‘পেহলা পেহলা পেয়ার’ ছিল বলিউডে মুক্তি পাওয়া তাঁর প্রথম ছবি। ছবিটি সফলতার মুখ দেখেনি।‘বিজয়পথ’ দিয়ে আলোচনায় আসেন তিনি। এতে অভিনয়ের সুবাদে সেরা নবাগত হিসেবে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড ঘরে তোলেন তিনি।

টাবুর ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট ‘মাচিস’। ১৯৯৬ সালে মুক্তি পাওয়া ছবিটিতে অভিনয়ের সুবাদে জেতেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।১৯৯৬ সালে টাবু অভিনীত আটটি চলচ্চিত্র মুক্তি পায়। তার মধ্যে ‘সাজন চলে সসুরাল’ ও ‘জিৎ’ সেই বছরের শীর্ষ পাঁচ ব্যবসাসফল চলচ্চিত্রের তালিকায় ছিল।

১৯৯৭ সালে ‘বিরাসাত’ ছবির জন্য ফিল্মফেয়ার সমালোচক শাখায় শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হন। পরে ১৯৯৯ সালে ‘হু তু তু’র জন্য ও ২০০০ সালে ‘অস্তিত্ব’র জন্য পরপর দুবার ফিল্মফেয়ার সমালোচক পুরস্কার পান।

অফট্র্যাক ছবির পাশাপাশি ‘হেরাফেরি’, ‘বিবি নাম্বার ওয়ান’ দিয়ে টাবু প্রমাণ করেন বাণিজ্যিক ও কমেডি ছবিতেও তিনি সমান পারঙ্গম।২০০১ সালে মুক্তি পাওয়া ‘চাঁদনীবার’ ছবির জন্য

দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।২৬ বছরের ক্যারিয়ারে তেলেগু, তামিল, মালায়ালম, মারাঠি এবং বাংলা ভাষার ছবিতে কাজ করেছেন টাবু। তিনি হলিউড ছবিতেও অভিনয় করেছেন।

২০০৭ সালে টাবু অভিনয় করেন তাঁর প্রথম হলিউড চলচ্চিত্র দ্য ‘নেমসেক’-এ। মিরা নায়ার পরিচালিত চলচ্চিত্রটিতে তাঁকে দেখা যায় ইরফান খানের বিপরীতে। ছবিটি ভারতে ও ভারতের বাইরে ব্যবসাসফল হয়।

চিনি কম চলচ্চিত্রে অমিতাভ বচ্চনের বিপরীতে অভিনয় করে প্রশংসা পান। ২০১২ সালে তিনি কাজ করেন তাঁর দ্বিতীয় হলিউড চলচ্চিত্র লাইফ অব পাই-এ।অভিনয় জীবনে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পরও ব্যক্তিগত জীবনে বরাবর একাই থেকেছেন তিনি।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান কেন বিয়ে করলেন না।মুম্বাই মিররকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিয়ে না করার জন্যই পুরো দোষটাই আরেক বলিউড তারকা অজয় দেবগনের ঘাড়ে চাপিয়েছেন।

ওই সাক্ষাৎকারে টাবু বলেন, ‘আমি আর অজয় একে-অপরকে ২৫ বছর ধরে চিনি। যখন ছোট ছিলাম, সামির আর অজয় আমার ওপর গোয়েন্দাগিরি করত। আমার সবকিছুতে নজর রাখত। যে কারণে আমি কারও সঙ্গে প্রেম করতে পারিনি।’

টাবু আরও জানিয়েছেন, এ জন্য ওঁদের অনুতপ্ত হওয়া উচিত। আর এখন আমাকে ভালো একজন পাত্র দেখে বিয়ে দিয়ে দেওয়ার দায়িত্বও অজয়ের।’ প্রসঙ্গত, টাবুর চাচাতো ভাই সামির আর্যের খুব ভালো বন্ধু অজয় দেবগন।

ওই সাক্ষাৎকারে টাবু বলেন, ‘আমি আর অজয় একে-অপরকে ২৫ বছর ধরে চিনি। যখন ছোট ছিলাম, সামির আর অজয় আমার ওপর গোয়েন্দাগিরি করত। আমার সবকিছুতে নজর রাখত। যে কারণে আমি কারও সঙ্গে প্রেম করতে পারিনি।’

টাবু আরও জানিয়েছেন, এ জন্য ওঁদের অনুতপ্ত হওয়া উচিত। আর এখন আমাকে ভালো একজন পাত্র দেখে বিয়ে দিয়ে দেওয়ার দায়িত্বও অজয়ের।’ প্রসঙ্গত, টাবুর চাচাতো ভাই সামির আর্যের খুব ভালো বন্ধু অজয় দেবগন।

ওই সাক্ষাৎকারে ‘চিনি কম’ ছবির বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে টাবু বলেন, তাঁর বাস্তব জীবনের কাছাকাছি চরিত্র ছিল তা। কিন্তু বাস্তব জীবনে এমনটা ঘটেনি। ওই ছবিতে ৩৪ বছর বয়সী সফটওয়্যার প্রকৌশলীর চরিত্রে অভিনয় করেন টাবু।

তাঁকে ৬৪ বছর বয়সী এক ব্যক্তির প্রেমে পড়তে দেখা যায়। ওই সাক্ষাৎকারে ‘চিনি কম’ ছবির বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে টাবু বলেন, তাঁর বাস্তব জীবনের কাছাকাছি চরিত্র ছিল তা।

কিন্তু বাস্তব জীবনে এমনটা ঘটেনি। ওই ছবিতে ৩৪ বছর বয়সী সফটওয়্যার প্রকৌশলীর চরিত্রে অভিনয় করেন টাবু। তাঁকে ৬৪ বছর বয়সী এক ব্যক্তির প্রেমে পড়তে দেখা যায়।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com