রাতে ঢাকা থেকে জামালপুরগামী ট্রেনে ডাকাতি, নিহত ২

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৮৯ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর ঢাকা থেকে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ যাওয়ার পথে জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই ব্যক্তি নিহতের খবর জানা গেছে। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। রেল পুলিশের জামালপুর থানার (জিআরপি) এসআই সোহেল রানা সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ঘটনা স্থল থেকে আহত ৩ জনকে উদ্ধার করে জামালপুর সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক ২ জনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ব্যক্তি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিক হতাহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

ঢাকা থেকে জামালপুরগামী একটি কমিউটার ট্রেনে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাত দলের আক্রমণে নিহত হয়েছেন দুই রেলযাত্রী। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও একজন।

বৃহস্পতিবার রাতে জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার ট্রেনে এ ঘটনা ঘটে। ট্রেনটি গাজীপুরের টঙ্গী এলাকা পার হওয়ার পর ডাকাত দলের কবলে পড়ে।

ডাকাতের হামলায় মারা যাওয়া দু’জন যাত্রীর মধ্যে একজন হলেন- জামালপুর শহরের ইকবালপুর এলাকার মো. ওয়াহিদের ছেলে মো. নাহিদ (৪০) এবং মৃত অপরজন অজ্ঞাত (৪০) পরিচয়ের পুরুষ ব্যক্তি। এছাড়া গুরুতর আহত অবস্থায় জামালপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন রুবেল (২২) নামের অপর এক যাত্রী। তিনি জেলার ইসলামপুর উপজেলার মাঝপাড়া গ্রামের হীরু মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ট্রেনযাত্রীদের বরাতে রেলওয়ে পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার বিকালে তারা ঢাকা থেকে কমিউটার ট্রেন জামালপুরে যাচ্ছিল। ট্রেনটি ময়মনসিংহের গফরগাঁও রেলস্টেশন ছাড়ার পর ট্রেনের ছাদের যাত্রীদের অনেকেই ডাকাতদলের কবলে পড়েন। ৪/৫ জনের ডাকাতদলটি অনেক যাত্রীর কাছ থেকে মানিব্যাগ ও মোবাইল ফোনসেট লুট করে ট্রেনের ইঞ্জিনের দিকে চলে যায়। এরপর ট্রেনটি রাত আনুমানিক পৌনে ৯টার পর ময়মনসিংহ রেলস্টেশন ছাড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই যাত্রী ফারুক ও নাহিদসহ বেশ কয়েকজন ট্রেনের ছাদে ডাকাতদের খুঁজতে যান। তারা ডাকাতদের চিনতে পেরে কিছু বলার আগেই ডাকাতরা তাদের ওপর হামলা করে। ডাকাতরা নাহিদ ও অপর একজনকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। পরে রুবেল মিয়াকেও ছুরিকাঘাত করে মারাত্মক আহত করে। এতে ওই তিন যাত্রী গুরুতর আহত অবস্থায় ট্রেনের ছাদেই পড়ে থাকেন।

রাত ১০টার দিকে ট্রেনটি জামালপুর রেলস্টেশনে পৌঁছলে গুরুতর আহত তিন যাত্রীকে ছাদ থেকে নামিয়ে জামালপুর সদর হাসপাতালে নেয় রেলওয়ে থানা পুলিশ। তাদের মধ্যে নাহিদ ও অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করেন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত মেডিক্যাল অফিসার মো. জাকিউল আলম খান। গুরুতর আহত রুবেল জামালপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রেল পুলিশের জামালপুর থানার (জিআরপি) এসআই সোহেল রানা বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল গিয়ে তিনজনকে উদ্ধার করে জামালপুর সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত এক ব্যক্তি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মৃত দুই ব্যক্তির মরদেহ জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com