সেমিফাইনালে লেজারের ঘটনায় শাস্তির মুখোমুখি ইংল্যান্ড

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১
  • ৩ বার পড়া হয়েছে

ডেনমার্কের বিপক্ষে সেমিফাইনালে বেশ কয়েকটি বিতর্কিত ঘটনার জন্ম দিয়ে ফাইনালে নাম লিখেছে ইংল্যান্ড। তবে তাদের সেই বিতর্কিত ঘটনাগুলোর বিষয়ে তদন্তে নামছে ইউরো কাপের আয়োজক উয়েফা। বিশেষ করে হ্যারি কেইনের পেনাল্টি কিক নেয়ার সময় ডেনিস গোলরক্ষকের চোখে লেজার লাইট মারার ঘটনা নিয়েই বেশি ক্ষেপেছে উয়েফা।

৫৫ বছর পর এই প্রথম কোন বড় টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে ইংলিশরা। তবে সেটা পুরোপুরি প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে। যে কারণে স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি নেই ইংল্যান্ডের। ডেনমার্কের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে একাধিক বিতর্কের পাশাপাশি উয়েফার শাস্তির খাঁড়াও ঝুলছে তার ওপর।

ঘটনার সূত্রপাত একস্ট্রা টাইমে ইংল্যান্ডের প্রাপ্ত পেনাল্টি কিক থেকে। রাহিম স্টার্লিংকে পেনাল্টি বক্সে রেফারির মতে জোয়াকিম মেইলা ফাউল করায় পেনাল্টি দেওয়া হয় ইংল্যান্ডকে। এই বিতর্কিত সিদ্ধান্তের পর অধিনায়ক হ্যারি কেইন যখন পেনাল্টি শট নিতে যান, তখন দেখা যায় ড্যানিশ গোলরক্ষক ক্যাসপার স্মাইকেলের চোখে-মুখে তার একাগ্রতা ভঙ্গের জন্য গ্যালারি থেকে লেজার লাইট ফেলা হচ্ছে।

তখন এ নিয়ে তেমন কিছু না হলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় খেলা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই লাইট ফেলার বেশ কিছু ছবি ভাইরাল হয়। এরপরে উয়েফা ঘটনাটির গুরুত্ব বুঝে তদন্তের সিদ্ধান্ত নেয়। উয়েফা এক বিবৃতিতে জানায়, ‘উয়েফা কন্ট্রোল, এথিক্স এন্ড ডিসিপ্লিনারি বডি (সিইডিবি) তাদের নির্দিষ্ট সময়মত এই ঘটনাটির তদন্ত করবে।’

ইংল্যান্ড-ডেনমার্ক সেমিফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় লন্ডনের বিখ্যাত ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে। যেখানে সেমিফাইনাল ম্যাচটি দেখার জন্য উপস্থিত ছিল ৬৩ হাজার দর্শক।

বিগত একমাস ধরে ফুটবল মাঠে ইংল্যান্ড একের পর এক নজির গড়লেও মাঠের বাইরে সমর্থকদের আচরণে লজ্জাজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বর্ণবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে হাঁটু গেঁড়ে বসার ভঙ্গি, প্রতিপক্ষের জাতীয় সঙ্গীতের আওয়াজ করে বিতর্ক সৃষ্টি করে ইংরেজ সমর্থকরা। এবার হয়তো সেই ভুলেরই অবশেষে মাশুল গুনতে হবে ইংল্যান্ডকে।

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com