গাছে গাছে ‘আল্লাহ’র গুণবাচক নাম

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৮ মে, ২০২১
  • ২ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরে আল্লাহ তা’লার জিকির-গুণবাচক নাম গাছে গাছে সাঁটানো হয়েছে। এতে লেখা রয়েছে ‘আলহাদুলিল্লাহ, সুবহানাল্লাহ, আল্লাহু আকবার ও লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ’-সহ আল্লাহ তা’লার অসংখ্য গুণবাচক নাম। শুধু তাই নয়, প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর বাণীও সাঁটানো হয়েছে। এমন দৃশ্য নজর কেড়েছে রাস্তায় চলাচলকারী মানুষের। আরবি ও বাংলায় লেখা আল্লাহ তা’লার গুণবাচক এমন বাণী পড়ছেন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ শ্রেণি পেশার মানুষ।

স্থানীয়রা এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানালেও অনেকেই আবার অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এদিকে, কে বা কারা এমন বাণী গাছে টাঙিয়েছে তা জানেন না কেউ। স্থানীয়রা বলছেন- ‘রাতের কোনো সময়ে কেউ না কেউ গুণবাচক নামগুলো টাঙিয়েছে। কিন্তু এ নামগুলোর ফেস্টুনে কোনো সংগঠনের নাম উল্লেখ নেই। আবার কোনোটাতে লেখা থাকলেও তা পুরো নাম লেখা নেই।’

সরেজমিনে- উপজেলার কয়েড়া, নিকরাইল, সিরাজকান্দি, সারপলশিয়া, পাথাইলকান্দি, টোলাজান কয়েড়া (নৌকা মোড়), রুহুলী, চর কয়েড়া, ফলদা, মাটিকাটা, নিকলা ও পৌর এলাকার বামনহাটা, ঘাটান্দি বিভিন্ন এলাকায় গাছে এই বাণিগুলোর চিত্র রাস্তার দু’পাশে দেখা যায়। এছাড়া গুণবাচক নাম সম্বলিত ফেস্টুন কম্পিউটার কম্পোজ করে সাঁটানো হয়েছে। ঝড়-বৃষ্টি থেকে ফেস্টুন গুলোকে বাঁচাতে করা হয়েছে লেমেনেটিং।

পথচারী আল আমীন বলেন- ‘সকাল বেলা এই রাস্তা দিয়ে হেটে বাড়ী যাই এবং বাজারে আসি। যাওয়া ও আসার সময় গাছে টাঙানো আমাদের প্রিয় নবীর বাণিগুলো পড়ি। এতে আমার ভাল লাগে ও সওয়াব পাওয়া যায়। ইজিবাইক চালক আনোয়ার বলেন, আমি আরবি পড়তে জানিনা। তবে বাংলায় ওই বানীগুলো পড়তে পারি। এখান থেকে পড়ে আমি অনেকগুলো মুখস্থ করে নিয়েছি।’

স্থানীয় এক যুবক হুমায়ন বলেন, ‘সড়কের দুই পাশের গাছগুলো পরিবেশ বান্ধব। সেইসঙ্গে গাছে গাছে আল্লাহর জিকির লেখা দেখা মাত্র আল্লাহকে স্মরণ হয়। প্রতিদিন সকালে সড়কের পাশে হাঁটা হয়। তাই ফেস্টুন দেখলেই জিকির করি। এখন জিকির অভ্যাসে পরিণত হয়েছে।’

এ বিষয়ে ভ‚ঞাপুর উপজেলা ইমাম পরিষদের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের ইমাম মুফতি শহিদুল ইসলাম ভ‚ঞাপুরী জানান- ‘গাছে গাছে আল্লাহর নাম সাঁটানোর বিষয়ে আমি জানি না। যারা এই কাজগুলো করেছে তা অবশ্যই প্রশংনীয় এবং যারা পাঠ করবে তারাও সওয়াব পাবেন। এ পাঠগুলো যেকোন সময় পড়া যায়, এতে কোনো ক্ষতি নেই। তবে এমন কাজের বিষয়ে আমার সাথে কেউ আলোচনা করেনি।’

টাঙ্গাইল জেলা শাখা’র জাতীয় মুফাসসির পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ সাখাওয়াত হুসাইন বলেন- ‘রাস্তার মোড়ে মোড়ে বিভিন্ন গাছে আল্লাহ’র জিকির ও গুণবাচক নামগুলো চোখে পড়েছে। তবে কে বা কারা এই বানীগুলো টাঙিয়েছে তা জানিনা। তিনি আরও বলেন- যারা লাগিয়েছে নিঃসন্দেহে এটি একটি মহৎ কাজ। তারা যদি সৎ উদ্দ্যেশে কাজগুলো করে থাকেন অবশ্যই সওয়াব পাবেন এবং যারা পড়বেন তারাও সওয়াব পাবে।’

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com