kidarkar

বল হাতে সেঞ্চুরিতে দ্রুততম মিরাজ

খেলাধুলা

নাহিদ হাসান | ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ০৫:১৪ অপরাহ্ন

সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন চট্টগ্রামেও। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকানোর পর বল হাতেও নিয়েছিলেন ৪টি উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬টি উইকেট পেলেই ম্যাচে সেঞ্চুরি ও দশ উইকেটের বিরল কীর্তির পাশাপাশিউইকেটের সেঞ্চুরিটাও হয়ে যেত ডানহাতি অফস্পিনার মেহেদি হাসান

মিরাজের। কিন্তু সেই ম্যাচে পারেননি, দ্বিতীয় ইনিংসে নিয়েছিলেন ৪ উইকেট। ফলে অপেক্ষা বাড়ে সেঞ্চুরির।ঢাকার মিরপুরে শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথমদিন লাইন-লেন্থ ধরে রেখে নিয়ন্ত্রিত বোলিং করলেও, উইকেটের দেখা পাননি মিরাজ। পরে দ্বিতীয় দিন তার হাত ধরেই প্রথম ব্রেকথ্রু পেয়েছিল বাংলাদেশ।

কিন্তু পরে সে ইনিংসে আর উইকেটের দেখা পাননি এই স্পিনার। তবে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই শেন মোজলির উইকেট নিয়ে নিজের উইকেটের সেঞ্চুরি পূরণ করেছেন মিরাজ।

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের চতুর্থ বোলার হিসেবে ১০০ উইকেট নিলেন মিরাজ। তার আগে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে উইকেটের সেঞ্চুরি করেছেন মোহাম্মদ রফিক, সাকিব আল হাসান ও তাইজুল ইসলাম।

এ চারজনের মধ্যে ম্যাচ ও ইনিংসের হিসেবে মিরাজই দ্রুততম সময়ে ১০০ উইকেট নিলেন। তার লেগেছে ২৪ ম্যাচ ও ৪১ ইনিংস।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সবার আগে ২০০৮ সালে নিজের ক্যারিয়ারের ৩৩তম ম্যাচ (যা তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট) ও ৪৮তম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার রবিন পিটারসেনকে জুনায়েদ সিদ্দিকীর হাতে ক্যাচে পরিণত করে ১০০তম উইকেটটি নেন রফিক। যা তার ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট উইকেট ছিল।

রফিকের চার বছর পর ২০১২ সালে নিজের ২৮তম ম্যাচ ও ৪৬তম ইনিংসে ১০০ উইকেটের মাইলফলকে প্রবেশ করেন সাকিব আল হাসান। খুলনায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিকে সাজঘরে পাঠিয়ে এ সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি।

তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে উইকেটের শতক তুলে নিতে তাইজুল খেলেন ২৫ ম্যাচ ও ৪৪ ইনিংস। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে এ মাইলফলকে প্রবেশ করেন তাইজুল।

ম্যাচের প্রথম ইনিংসে আফগান ওপেনার এহসানউল্লাহকে সরাসরি বোল্ড করার মাধ্যমে সাকিবের চেয়ে দুই ইনিংস কম খেলেই সেঞ্চুরিতে পৌঁছে যান তাইজুল ইসলাম।

এবার আগের তিনজনের চেয়েই কম ম্যাচ ও ইনিংসে এ কীর্তি গড়লেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট শুরুর আগে তার উইকেট ছিল ৯৮টি। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে নিজের ২৫তম ওভারে বোনারকে লেগস্লিপের হাতে ক্যাচে

পরিণত করে ৯৯-এ যান মিরাজ। আর পরে দ্বিতীয় ইনিংসের নবম ওভারে মোজলিকে দ্বিতীয় স্লিপের হাতে ক্যাচ বানিয়ে সেঞ্চুরি পূরণ করেছেন এ অফস্পিনিং অলরাউন্ডার।

টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেট
১/ সাকিব আল হাসান : ৫৭ ম্যাচে ২১০ উইকেট
২/ তাইজুল ইসলাম : ৩১ ম্যাচে ১২০ উইকেট

৩/ মোহাম্মদ রফিক : ৩৩ ম্যাচে ১০০ উইকেট
৪/ মেহেদি হাসান মিরাজ : ২৪ ম্যাচে ১০০ উইকেট
৫/ মাশরাফি বিন মর্তুজা : ৩৬ ম্যাচে ৭৮ উইকেট

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar