kidarkar

শাখের করাতে আ.জ.ম নাছির

বাংলাদেশ

নাহিদ হাসান | ২৬ জানুয়ারী ২০২১, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ০৪:৩৪ অপরাহ্ন

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী নন তিনি। কিন্তু এই নির্বাচন নিয়ে সবচেয়ে বি’পদে যে মানুষটি তার নাম আ.জ.ম নাছির। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র। আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম মহানগরীর প্র’ভাবশালী নেতা।

নির্বাচনের দুই দিন আগে, মেয়র দুই প্রার্থী ছাড়া যাকে নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে সবচেয়ে বেশি আলোচনা তিনি হলেন আ.জ.ম নাছির। এই নির্বাচন তার রাজনৈতিক জীবনে সবচেয়ে বড় বিপর্যয় আনতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী জিতলেও নাছিরের বি’পদ, হারলে আরো বড় বি’পদ।

এই নির্বাচন যেন শাখের করাতে ফে’লে ছে সাবেক মেয়রকে। আ.জ.ম নাছির চট্টগ্রামের রাজনীতিতে প্রয়াত মহিউদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধ পক্ষ হিসেবে পরিচিত। মহিউদ্দিন চৌধুরীকে বাদ দিয়ে গতবার যখন নাছিরকে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দেয়, তখন এই বিরো’ধ আরো প্র’কাশ্য হয়।

এবারের নির্বাচনে নাছিরকে আর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়নি। তার বদলে মনোনয়ন পেয়েছেন মহিউদ্দিন পন্থী হিসেবে পরিচিত রেজাউল। এই নির্বাচনে তাই রেজাউল বিজয়ী হলে, চট্টগ্রামের রাজনীতিতে কোনঠাসা হয়ে পরবেন নাছির। কারণ নওফেল এবং রেজাউল জুটির হাতেই চলে যাবে চট্টগ্রামের রাজনীতির নি’য়ন্ত্রণ। ফলে তার প্র’ভাব কমবে।

তাছাড়া দলের কে’ন্দ্রীয় নেতৃত্বের সুনজরে না থাকায়, স্বতন্ত্র অব’স্থান নিয়ে নাছিরের টিকে থাকার জন্য ক’ঠিন সংগ্রাম ক’রতে হবে। আর এই নির্বাচনে যদি শেষ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ প্রার্থী হেরে যান তাহলে আরো ক’ঠিন প’রিস্থিতির মু’খোমুখি হতে হবে আ.জ.ম নাছিরকে। কারণ, রেজাউল করিম চৌধুরীকে মনোনয়ন দেয়ার পর থেকেই নাছির পন্থীদের অসন্তোষের কথা শোনা যাচ্ছিল। চট্টগ্রামের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীন কোন্দল ছিলো সবচেয়ে আলোচনার বিষয়।

বিশেষ করে, বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিদ্রোহী প্রার্থীর জন্য অনেকেই আ.জ.ম নাছিরকে দায়ী করেন। দলীয় মেয়র প্রার্থীর জন্য যেভাবে মাঠে থাকার কথা ছিলো, সেভাবে মাঠে নাছির ছিলেন না বলেও অনেকে অ’ভিযোগ করেন। আওয়ামী লীগের নেতারা প্র’কাশ্যেই বলেন ‘এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের হারার একটি মাত্র কারণ থাকতে পারে তা হলো আ.জ.ম নাছিরের ভূমিকা।’তাই এই নির্বাচন নাছিরের রাজনীতিকে অ’গ্নি পরীক্ষায় ফে’লে ছে। এখান থেকে তিনি কিভাবে বেরিয়ে আসেন, সেটিই দেখার বিষয়।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar