kidarkar

জয়ের জন্য রাজকোটে নামার আগে টাইগারদের যে পরামর্শ দিলেন সাঙ্গাকারা

খেলাধুলা

জাহিদ হাসান | ০৬ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ০১:০৭ অপরাহ্ন

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দিল্লিতে ভারতকে এক অর্থে হেসেখেলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তিন বিভাগেই দাপট দেখিয়েছেন টাইগাররা। দুরন্ত ফিল্ডিংয়ের সঙ্গে ছন্দময় বোলিং করেছেন তারা। পাশাপাশি ব্যাটিংটাও হয়েছে যুতসই।

ওই ম্যাচে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সব সিদ্ধান্ত সফল হয়েছে। কোচিং স্টাফের যাবত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হয়েছে। স্বভাবতই ভারতের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রথম জয় পেয়েছেন লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

এখন তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০তে এগিয়ে বাংলাদেশ, ব্যাকফুটে টিম ইন্ডিয়া। এরই মধ্যে রাজমুকুটের সন্ধানে রাজকোটে পৌঁছেছেন মাহমুদউল্লাহরা। বৃহস্পতিবার এখানে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে রোহিত শর্মাদের বিপক্ষে লড়বেন তারা।

এখন সফরকারীদের চোখ সিরিজ জয়ে। তবে তা মোটেও সহজ হবে না বলে তাদের সতর্ক করে দিয়েছেন শ্রীলংকার কিংবদন্তি ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারা। বাংলাদেশকে নিজেদের খেলায় বিশ্বাস রাখতে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

প্রথম ম্যাচে শফিউল, আমিনুল, আফিফের দুর্দান্ত বোলিংনৈপুণ্যে শক্তিশালী ভারতকে ১৪৮ রানে আটকে রাখে বাংলাদেশ। শফিউল ও আমিনুল নেন দুটি করে উইকেট। আর ১ উইকেট ঝুলিতে ভরেন আফিফ।

পরে অসাধারণ ব্যাটিং করেন মুশফিক, সৌম্য ও নাঈম। মুশফিক খেলেন হার না ৬০ রানের বীরোচিত ইনিংস। সৌম্য করেন লড়াকু ৩৯ রান। আর অভিষিক্ত নাঈমের উইলো থেকে আসে দায়িত্বশীল ২৬ রান। তাতে ৩ বল ও ৭ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে নোঙর করে বাংলাদেশ।

তবে রাজকোটের উইকেট দিল্লির তুলনায় ভিন্ন। ব্যাটিং সহায়ক এ উইকেটে বাংলাদেশকে একাদশ নির্বাচনে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার উপদেশ দিয়েছেন সাঙ্গা। তিনি বলেন, বাংলাদেশের নিজেদের খেলার ওপর বিশ্বাস রাখা প্রয়োজন। যেভাবে তারা প্রথম ম্যাচ খেলেছে, সেটার ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে। উদ্বোধনী জুটি ভালো ছিল, মিডলঅর্ডার খুবই শক্তিশালী। উইকেট হারানোর পর চাপ নিতে দেখা যায়নি তাদের।

তিনি যোগ করেন, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দলের ব্যাটিং লাইনআপ বিশ্বের সর্বোচ্চ শক্তিশালী হলেও বোলিংয়ে নজর দিতে হবে। চাপে ভড়কে গেলে চলবে না। পরিকল্পনা সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। মাঠ অনুযায়ী একাদশ সাজাতে হবে। মূলত এসব দিকেই দৃষ্টি দিতে হবে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar