kidarkar

ছাত্রীর সর্বনাশ শিক্ষিকার অবহেলায়

বাংলাদেশ

জাহিদ হাসান | ০৪ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ০১:৩৮ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জের বাহুবলে স্কুল শিক্ষিকার দায়িত্বে অবহেলা ও ভুলের মাসুল দিতে হচ্ছে এক শিক্ষার্থীকে। লিপি আক্তার নামের ওই ছাত্রী চলতি জেএসসি পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষিকা রুবি রাণী দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে ম্যানেজিং কমিটি। রোববার রাত 8টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ওই প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক কানু প্রিয় চক্রবর্তী।

তিনি বলেন- রোববার বেলা ১১টায় স্কুল প্রাঙ্গনে ম্যানেজিং কমিটির এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অভিযুক্ত ওই শিক্ষিকা নিজের দায়িত্বে অবহেলার কথা স্বীকার করলে স্কুল কমিটি তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে। তবে পরীক্ষা বঞ্চিত ছাত্রীর এক বছরের শিক্ষা বাবত সকল খরচ ক্ষতিপূরণ হিসেবে দিতে রাজি হয়েছেন অভিযুক্ত শিক্ষিকা।

জানা যায়, বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের মীরের পাড়া গ্রামের মতিন মিয়ার কন্যা লিপি আক্তার পুটিজুরী শরৎচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ে চলতি জেএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো। সরকারি বিধি মোতাবেক রেজিস্ট্রেশন ফি ও সকল প্রকার কাগজ-পত্র পূরণ করে জেএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয় ওই ছাত্রী। কিন্ত পরীক্ষার যাবতীয় কাগজপত্র প্রতিষ্ঠানের দপ্তরে জমা দেননি ক্লাস শিক্ষিকা রুবী রানী দাস। যার কারণে চলতি জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি লিপি আক্তার।

এ বিষয়ে পুটিজুরী শরৎচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শাহ আব্দুল আহাদ বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, যে শিক্ষিকার দায়িত্বে অবহেলা ও গাফলতির কারণে একজন শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবনে ঝুঁকি নেমে আসে তাকে সাময়িক নয়, প্রয়োজনে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।

অভিযুক্ত শিক্ষিকা রুবী রানী দাসের বিরুদ্ধে স্কুলে শিক্ষার্থীদের সাথে অসদাচরণ ও খারাপ ব্যবহারেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি স্কুলে বসে ফোনে ব্যস্ত থাকা, টেবিলে পা তুলে বসাসহ একাদিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar