সাকিবের নিষেধাজ্ঞায় ভারতিয় ক্রিকেট বোর্ডের হাত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৩০ বার পড়া হয়েছে

দুই বছরের জন্য সবধরণের ক্রি কেট থেকে নি র্বাসনে টাইগার দলপতি সা কিব আল হাসান তার বি রুদ্ধে অ ভিযোগ, ম্যাচ গড়াপেটায় ভারতীয় জু য়াড়ি দিপক আগারওয়ালের দেয়া প্রস্তাবের কথা তিনি তাৎক্ষণিক আইসিসির সংশ্লিষ্ট দফতরে জানাননি।

তিনটি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ভিত্তিতে এই শা স্তি দেয়া হয়। ৩ অ ভিযোগের মধ্যে একটি রয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) সংক্রান্ত। গত বছর আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মধ্যকার ম্যাচের সময় জু য়াড়ি দিপক আগরওয়ালের কাছ থেকে ফি ক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন সা কিব।

ভারতীয় ক্রিকেট এবং আইপিএল সংশ্লিষ্ট অভিযোগ হওয়ার কারণে, অনেকেই মনে করছিলেন, সাকিব আল হাসানের বিপক্ষে আইসিসির তদন্ত এবং এ নি ষেধাজ্ঞার শা স্তির পেছনে সম্ভবত ভারতেরও কোনো ভূমিকা থাকতে পারে। এ বিষয় নিয়ে অ্যান্টি করাপশন অ্যান্ড সিকিউরিটি ইউনিটকের (আকসু) সঙ্গে কথা বলেছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রধান অজিৎ সিং। তিনি বলেন, এখানে বিসিসিআইয়ের ভূমিকা রাখার কোনো সুযোগই ছিল না।

বিষয়টা সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে আইসিসি অ্যান্টি করাপশন অ্যান্ড সিকিউরিটি ইউনিট (আকসু) দেখেছে। তারা তদন্ত করেছে এবং শা স্তি ঘো ষণা করেছে। আইপিএলের ম্যাচের একটি বিষয় থাকার কারণেই মূলত বিসিসিআইর প্রসঙ্গ উঠে আসে। এ বিষয়ে অজিৎ সিং জানান, বিষয়টা পরিপূর্ণভাবে আইসিসিই সামলেছে। কারণ, ওই সময় আইপিএলে দু র্নীতির বিষয়টি দেখভালের দায়িত্ব ছিল আইসিসির।

আমাদের নয়। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অ্যান্টি করাপশন ইউনিটের প্রধান বলেন, ‘আইপিএলের যে মৌসুমের ম্যাচ নিয়ে এত আলোচনা হচ্ছে, সে মৌসুমের সব দু র্নীতি বি রোধী বিষয় আইসিসিই দেখভাল করেছে। কোনো অ ভিযোগ উঠলে তা নিয়ে আইসিসিই কাজ করেছে, তদন্ত করেছে। এর সঙ্গে বিসিসিআইয়ের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।’

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
kidarkar
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com