kidarkar

এবার না’গঞ্জে নারী পিয়নের সাথে কৃষি কর্মক’র্তার অনৈতিক ক’র্মকা’ণ্ডের ভিডিও ফাঁ’স

বাংলাদেশ

হাসান রাফি | ৩০ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ০৯:৫১ পূর্বাহ্ন

জামালপুরের সাবেক ডিসির নারী কেলেংকারীর রেশ কাটতে না কাটতেই এবার নারায়ণগঞ্জে বন্দরে সরকারি অফিসে এক কর্মক’র্তার অ’নৈতিক কর্মকা’ণ্ডের ভিডিও ফাঁ’স হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজে’লা কৃষি অফিসের উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মক’র্তা জয়নাল আবেদীনের সঙ্গে ওই অফিসের এক নারী অফিস সহায়কের (পিয়ন) ঘনিষ্ট অবস্থার সিসিটিভির ফুটেজ ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পরই জয়নাল আবেদীনকে অন্যত্র বদলী করার কথা জানিয়েছেন উপজে’লা প্রশাসন।

ঘটনা প্রকাশ হওয়ার পর বন্দর উপজে’লা কৃষি কর্মক’র্তা পত্র নং ১২.১৮.৮৭০৬.০৩৯.০৪১.১২/৪৬৪ নং স্বারকে জয়নালের অনৈক কর্মকা’ণ্ডের কথা কিছুটা উল্লেখ করে জে’লা কর্মক’র্তাকে অবহিত করেন।

বন্দর উপজে’লা নিবার্হী কর্মক’র্তা শুক্লা সরকার জানান, এই কর্মক’র্তার বি’রুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে জে’লা কৃষি কর্মক’র্তাকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এরইমধ্যে জয়নাল আবেদীনকে বদলি করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনা স্বীকার করে জয়নাল আবেদীন বলেন, ‘আমি ভুল করেছি। শয়তানের প্র’রোচনায় আমি ভুল করেছি। আমি এ ঘটনার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী।’

ওই নারী পিয়ন বলেন, ‘জয়নাল সাহেব আমা’র ঊর্ধ্বতন অফিসার। তিনি আমা’র ইচ্ছার বি’রুদ্ধে অ’নৈতিক কাজ করেছেন। চাকরির ভয়ে আমি চুপ ছিলাম।’

ফাঁ’স হওয়া সিটিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, গত ৮ অক্টোবর সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মক’র্তা জয়নাল আবেদীন তার রুমে বসে অফিসের নারী পিয়নের সঙ্গে কথা বলছেন। এক পর্যায়ে চেয়ার থেকে উঠে গিয়ে তিনি জো’র করে ওই নারীর গায়ে হাত দিচ্ছেন। ওই নারী টেনে তার হাত সরিয়ে দেন। পরে তিনি (ওই নারী) বাইরে চলে যান। তিন-চার মিনিট পর জয়নাল আবেদীন আবার ওই নারীকে রুমে নিয়ে আসেন এবং চেয়ারে বসে কিছুক্ষণ কথাবার্তা বলেন। এরপর ওই নারী কর্মী আবার রুম থেকে বের হয়ে যান। তার দুই মিনিট পর জয়নাল আবেদীনও রুম থেকে বের হয়ে যান। দুই তিন মিনিট পর আবার জয়নাল আবেদীন ও ওই নারী কর্মী রুমে প্রবেশ করেন। এর পর তাদের ঘনিষ্ট অবস্থায় দেখা যায়। প্রায় ১৪ মিনিটের ফুটেজ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক মাধ্যমে।

বন্দর উপজে’লা কৃষি কর্মক’র্তা ফারহানা সুলতানা জানান, ‘আমি সিসিটিভি ফুটেজ দেখেছি। বিষয়টি নিয়ে উপজে’লা নিবার্হী কর্মক’র্তার সঙ্গে কথা বলেছি। তার নির্দেশে অ’নৈতিক কর্মকা’ণ্ডের বিষয়টি জে’লা কৃষি কর্মক’র্তাকে অবহিত করে তার বি’রুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।’

নারায়ণগঞ্জ জে’লা কৃষি কর্মক’র্তা কাজী হাবিবুর রহমান জানান, ‘এরই মধ্যে জয়নালকে বন্দর উপজে’লা থেকে বদলি করা হয়েছে। তার বি’রুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্মক’র্তাদের জানানো হয়েছে। যৌ’ন হয়’রানির শিকার নারী চাইলে ফৌজদারি মা’মলা করতে পারেন।

বন্দর উপজে’লা চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ বলেন, সরকারি চাকরিজীবীদের নৈতিক স্খলন কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। অফিসের নারী পিয়নও তার কাছে নিরাপদ নয়। এই কর্মক’র্তার দৃষ্টান্তমূলক শা’স্তি হওয়া দরকার যাতে ভবিষ্যতে কেউ আর এরকম করতে না পারে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar