kidarkar

বাস্তব সালমানের একি দশা!

বিনোদন

রানা মিয়া | ২৮ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৯ অপরাহ্ন

কয়েক বছর আগে মুক্তি পাওয়া সালমান খানের ছবি সুলতানের কথা নিশ্চয় মনে আছে আপনাদের। সিনেমায় অলিম্পিক পদক জিতে কুস্তি ছেড়ে দেন সুলতানরূপী সালমান। আবার ফিরে আসেন মার্শাল আর্টের যোদ্ধা হয়ে এবং জিতেও যান। কিন্তু বাস্তবে জীবন এরকম সুযোগ বোধ হয় কেউ পান না! তাই বাস্তবের সুলতানদের গল্পটা হেরে যাওয়ার!!
৯০-এর দশকে ভারতীয় বক্সিংয়কে আশা দেখানো লোকগুলোর অন্যতম উত্তর প্রদেশের কমল কুমার। জাতীয় স্তরে একসময়ের অন্যতম সেরা বক্সার এখন ময়লা ফেলার গাড়ি টেনেই জীবন ধারণ করেন।

ক্রিকেট–ফুটবল বাদে ভারতীয় ক্রীড়াবিদদের জীবন কতটা সংঘর্ষের তা প্রমাণিত হয়েছে কমল কুমারের মতো ঘটনাগুলো সামনে আসাতে। অর্থ এবং প্রয়োজনীয় ট্রেনিংএর অভাবে দেশের প্রতিভাবান অ্যাথলিটদের হারিয়ে যাওয়া নতুন ঘটনা নয়। নব্বইয়ের দশকে জেলাস্তরে তিনটি স্বর্ণপদক এবং জাতীয় স্তরে ব্রোঞ্জ পদক রয়েছে কমলের। কিন্ত তারপরও আজ কিছুই করার নেই তার।

কমল জানান, তার অত্যধিক রাগ এবং ব্যবহারে সমস্যাও এর একটা কারণ। পাশাপাশি সময় মতো অর্থ সাহায্য না পাওয়ার জন্যই বক্সিং ছাড়তে হয় তাকে। বক্সিং ছাড়ার পর সরকারের পক্ষ থেকে কোনো সাহায্যও পাননি তিনি। তাই জীবন ধারণের জন্য এখন ময়লা ফেলার গাড়ি চালান কমল।

বক্সিং ছাড়ার পর কোচ হওয়ার চেষ্টাও করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেক্ষেত্রেও সফলতা আসেনি। নিজের ছেলেকে বক্সিং শেখানোর আশায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে কড়া নেড়ে আশাহত হয়েছেন এই প্রাক্তন বক্সার। নিজে যা জানেন সেটুকু দিয়ে ছেলের বক্সিংয়ের হাতেখড়ি তো শুরু করেছেন। কিন্তু পেশাগত বক্সিংয়ের ট্রেনিং, সামগ্রী এবং ঠিকমতো পুষ্টির জন্য খাবারের প্রয়োজন রয়েছে। যার জন্য দরকার অর্থের। সরকারি পক্ষে আশার আলো দেখতে না পেয়ে ব্যাঙ্কের দ্বারস্থ হয়েছেন কমল। কিন্তু সেখান থেকেও কোনো সুখবর আসেনি।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar