kidarkar

ধ’র্ষ’ক ছেলেকে পা’লাতে সহায়তা করায় পরিবারের সবাইকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ

বাংলাদেশ

হাসান রাফি | ২৭ অক্টোবর ২০১৯, রবিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২২ অপরাহ্ন

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছা’ত্রী (৮) ধ’র্ষণের শি’কার হয়েছে। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ধ’র্ষককে পা’লাতে সহায়তা করায় পরিবারের সবাইকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে অ’ভিযান চালিয়ে তাদের গ্রে’ফতার করে পু’লিশ। এরপর সন্ধ্যায় টঙ্গী থেকে ধ’র্ষক আজিজুল হককে (১৯) গ্রে’ফতার করা হয়। গ্রে’ফতারকৃত অন্যরা হলেন আজিজুলের বাবা আলম মিয়া (৪০), মা আছমা বেগম (৩০), মামা দুলাল মিয়া (৪০) ও চাচা নুরুল হক (৪০)।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সী’মান্তবর্তী আন্দারুপাড়া গ্রামের একটি ধানক্ষেতে শিশু ধ’র্ষণের ঘটনা ঘটে। গ্রে’ফতারকৃতদের আ’দালতের মাধ্যমে জে’লহাজতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও ধ’র্ষণের শি’কার শি’শুর পরিবার জানায়, উপজেলার আন্দারুপাড়া গ্রামের এক ব্যক্তির মেয়ে স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে। গত বৃহস্পতিবার আন্দারুপাড়া গ্রামে মামার বাড়ি বেড়াতে যায় ওই ছাত্রী। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মামার বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফেরার সময় ছাত্রী’র পথরোধ করে আজিজুল হক। সেই সঙ্গে রাস্তা থেকে ছা’ত্রীকে তু’লে নিয়ে ধানক্ষেতের আইলে ধ’র্ষণ করে আজিজুল।

এ ঘটনার পর কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি যায় ছা’ত্রী। তার শরীর থেকে র’ক্তক্ষ’রণ দেখে কারণ জানতে চান বাবা-মা। পরে ঘটনা খুলে বলে ছাত্রী। রাতেই চি’কিৎসার জন্য ছা’ত্রীকে শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বাবা-মা। এ খবর পেয়ে আজিজুলকে তার পরিবারের লোকজন পা’লিয়ে যেতে সহায়তা করেন।

শুক্রবার রাতে নালিতাবাড়ী থানায় ধ’র্ষণের মা’মলা করেন ছা’ত্রীর বাবা। আজিজুলকে পা’লাতে সহায়তা করায় তার পরিবারের পাঁচজনকে মা’মলার আ’সামি করা হয়। শনিবার অ’ভিযান চা’লিয়ে আজিজুল হকের বাবা-মা, মামা ও চাচাকে গ্রে’ফতার করে পু’লিশ। পরে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে সন্ধ্যায় টঙ্গী থেকে আজিজুলকে গ্রে’ফতার করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নালিতাবাড়ী থানা পু’লিশের ভার’প্রাপ্ত ক’র্মকর্তা (ও’সি) বছির আহমেদ বাদল বলেন, মা’মলার প্রধান আ’সামিসহ পাঁচজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। শি’শুটির ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে। তাকে চি’কিৎসা দেয়া হচ্ছে। গ্রে’ফতারকৃতদের আ’দালতের মাধ্যমে জে’লহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar