kidarkar

চরের রাজা যুবলীগ নেতা ঘুমান এসি নৌকায়

বাংলাদেশ

হাসান রাফি | ২৬ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ০৪:২৫ অপরাহ্ন

বগুড়ায় এক যুবলীগ নেতার সন্ধান পাওয়া গেছে যিনি বাস করেন শীতাতপ নি’য়ন্ত্রিত (এসি) নৌকায়। নৌকাটি আবার সিসি ক্যামেরায় ঘে’রা। বগুড়াবা’সীর কাছে মূ’র্তিমান আ’তঙ্ক তিনি। তাকে চ’রের রাজাও বলা হয়ে থাকে।

আ’লোচিত এই যুবলীগ নেতার নাম লুৎফর রহমান। তাকে পা’গলা ডা’কাত নামেই সবাই চেনে। তিনি জ’মিনে থাকেন না। থাকেন ডা’ঙ্গায়। চাঁ’দাবা’জি, রা’হাজা’নি, ছি’নতাই, ডা’কাতির কাজ শে’ষ হলেও জলে চলে যান। নদীর ওপর ভা’সমান নৌ’কায় ঘুমান তিনি। তাও যেমন-তেমন নৌকা নয়; থাই গ্লাস লাগানো এয়ারক’ন্ডিশন্ড (এসি) নৌকা। বিলা’সবহুল ওই নৌকায় টিভি-ফ্রিজ তো আছেই; সৌ’রবিদ্যুতেও চলে এসব। আছে সিসি ক্যামেরাও। তিনি যে নৌকায় বসবাস করেন সেটির দৈর্ঘ্য ৬০ ফুট, প্রস্থ ৮ ফুট।

পা’গলা ডা’কাতের বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ রয়েছে বি’স্তর। বসবাস পানিতে হলেও তার অ’পরাধ জল-স্থল সব জায়গা বিস্তৃ’ত। কৃষকের জমির ফসল লু’ট, নৌকায় ডা’কাতি, মা’দক ও অ’স্ত্র ব্যবসা, জু’য়ার আ’সর বসানো, যাত্রা’র নামে দে’হব্যবসা, বি’রো’ধপূর্ণ জমি নিজের নামে লিখে নেয়া, ডা’কাতিতে বা’ধা দিলেই খু’ন, অ’পরাধী ও পলা’তক আ’সামিদের আ’শ্রয় দে’য়া ও প্রহ’সনমূ’লক সা’লিশ- কী করেন না তিনি? এলাকায় তার একটা বাহি’নীও রয়েছে। বাহি’নীতে বিভি’ন্ন জে’লার শতা’ধিক সদস্য রয়েছে। যারা তার হু’কুম তা’মিলে ব্যস্ত।

বগুড়ার সা’রিয়াকা’ন্দি উপজে’লার যমুনা নদীর চ’রচা’লুয়াবা’ড়ী ইউনিয়নের পূ’র্বপা’ড়ের ব’হুলাডা’ঙ্গা গ্রামের মুছা শেখ ওরফে দা’লাল মুছার ছেলে এই লুৎফর রহমান। তার ইউনিয়নের পাশের ইউনিয়ন জামা’লপুরের মাদা’রগঞ্জ ও ইসলামপুর এবং আরেক পাশে গাইবা’ন্ধার সাঘাটার জু’মারবাড়ী এলাকা। তিন জে’লার সী’মান্ত এ’লাকার মধ্যে প’ড়েছে ব’হুলাডাঙ্গা গ্রাম। তাই তার রাজত্ব ও ক’র্মকাণ্ড তিন জে’লার ওই এ’লাকাগুলোতেই।

পা’গলা ডা’কাত ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি। তিনি এখন চ’রের রাজা। তার বি’রুদ্ধে ওঠা অভি’যোগগুলো এখন মানুষের মুখে মুখে। তার অ’পরাধগুলোও ওপেন সি’ক্রেট।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar