kidarkar

রোহিঙ্গাদের বিষয়ে আল্লাহ্‌র সাথে সরাসরি আলাপ হচ্ছে, আল্লাহ্‌ চিন্তায় আছেনঃ দেওয়ানবাগী

অদ্ভুত খবর

হাসান রাফি | ২৫ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

বর্তমানে আ’লোচিত একজন ব্যক্তি হচ্ছে দেওয়ানবাগী ভন্ড হুজুর। তার নাম নাকি মাহবুব এ ‘খোদা’ হলেও সর্বস্তরে দেওয়ানবাগী নামে পরিচিত।

তিনি নাকি প্রায় পৃথিবীর বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আল্লাহর সাথে আলাপ আলোচনা করে থাকেন, তার কিছু কথা শুনে নাকি আল্লাহ্‌ নিজেই চিন্তিত হয়ে পড়েন।

তিনি ইদানিং দাবি করছে রোহিঙ্গা নি’র্যাতনের বিষয়ে নাকি আল্লাহর সাথে আলাপ হচ্ছে। আল্লাহ্‌ নাকি চিন্তিত, তিনি এখনও কোন ডিসিশন দেন নি।

আপনাদের সকলের মতামত আশা করছি এই হুজুরের পক্ষে বিপক্ষে

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) নিজের ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যক ফেসবুক আইডিতে এ ঘোষণা দেন। সৈকত ব্যবস্থাপনা বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র।

সৈকত তার স্ট্যাটাসে লিখেন, ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, বরিশাল নগরীর প্রিয় অ’ভিভাবকবৃন্দ, সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ ভাই, রইজ আহমেদ মান্না ভাই, আতিকুল্লাহ মুনিম ভাই, অনিক সেরনিয়াবাত ভাই। ছাত্র রাজনীতি শূন্য বিএম কলেজের পুরনো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার জন্য বাধ্য হয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ন্যায্য অধিকার আদায়ে বাকসু আ’ন্দোলনের ডাক দিতে হলো।

শনিবার থেকে বিএম কলেজ ছাত্রসংসদ নির্বাচনের দাবিতে কলেজটি অনির্দিষ্ট’কালের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হলো। কলেজসমূহ সকল সংগঠনের আন্তরিক সহযোগিতা কাম্য।

বাকসু নির্বাচনের দাবিতে বিএম কলেজের অনির্দিষ্ট’কালের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাসের বিষয়টি স্বীকার করে খায়রুল হাসান সৈকত বলেন, ছাত্র সংসদ নির্বাচনের দাবিতে জো’র আ’ন্দোলন শনিবার থেকে শুরু হবে। সেই লক্ষে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন বলেন, ছাত্রলীগের কোনো তালিকায় সৈকতের নাম নেই। তবে সে কিভাবে নেতা হয়। আর সে যে স্ট্যাটাস দিয়েছে এটা তার ব্যক্তি মতামত হতে পারে। এর সাথে ছাত্রলীগের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

জে’লা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, কোনো ছাত্র নেতারই ক্ষমতা নেই শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করার। এই ঘোষণা যদি কেউ দিলে সেটা অযৌক্তিক। সরকারের সিদ্ধান্ত ছাড়া শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা অসম্ভব।

বিএম কলেজ অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান সিকদারের বলেন, আমা’রই তো এখতিয়ার নেই কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করার। ওই ছাত্রলীগ নেতা কিভাবে এই ঘোষণা দেয় সেটা বুঝতে পারছি না। এটা সম্পূর্ণ কা’ণ্ডজ্ঞানহীণ কাজ ছাড়া আর কিছুই নয়।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar