kidarkar

অনার্স প্রথম বর্ষের খাতা কাটছেন প্রভাষকের শ্যালিকা

বাংলাদেশ

হাসান রাফি | ২৪ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের পরীক্ষার খাতা দেখছেন সাতক্ষীরার তালা উপজে’লার কুমিরা মহিলা ডিগ্রি কলেজের ছাত্রী সোমা মহলদার। ওই কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক আদিত্য ব্যানার্জী পরীক্ষার খাতা না দেখে এ কলেজছাত্রীকে দিয়েছেন। স’ম্পর্কে এ কলেজছাত্রী ওই প্রভাষকের শ্যালিকা এবং ও কুমিরা মহিলা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করলে দেখা যায় ওই ছাত্রী ক্যাম্পাসে অনার্স প্রথম বর্ষের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ের খাতা কাটছেন। খাতাগুলো কে দিয়েছেন, কোথায় পেলেন প্রশ্ন করতেই বেরিয়ে পড়ে অজানা কাহিনী।

সোমা মহালদার বলেন, আমা’র দুলাভাই খাতাগুলো দিয়েছেন দেখার জন্য। তাই আমি দেখছি। এগুলো জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাসের (২০১১৫০১) খাতা।

আপনার কাছে কতগুলো খাতা রয়েছে এমন প্রশ্নে ওই ছাত্রী বলেন, আমা’র কাছে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস বিষয়ের ৫০টি খাতা রয়েছে। এরপর তিনি রুমে গিয়ে বাকিখাতা বের করে দেখান। খাতায় দেখা যায় ওই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে চলতি বছরের ১ আগস্ট। কলেজ ছুটির দিন থাকায় ঘটনার সময় দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তা প্রহরী উপস্থিত ছিলেন।

পরীক্ষার খাতা শ্যালিকা অথবা ছাত্রীকে দিয়ে দেখানোর বিষয়ে কুমিরা মহিলা কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক আদিত্য ব্যানার্জী বলেন, বয়স একটু বেশি হওয়ার কারণে চোখে ঠিকমতো দেখতে পাই না। তাই শিক্ষার্থীর কাছে দিয়েছি দেখার জন্য।

অ’ভিযোগের এসব বিষয়ে জানতে কলেজ অধ্যক্ষ লুৎফুন আরা জামানের ফোনে একাধিক কল দেয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

অন্যদিকে, কলেজের ইংরেজী বিষয়ের প্রভাষক আছাদুজ্জামান বিষয়টি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ জানান।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar