kidarkar

কাশ্মীর নিয়ে মুখ খুলে মাহাথির মূল্য দিচ্ছেন পাম তেলে?

বিশ্ব

রানা মিয়া | ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:২০ পূর্বাহ্ন

কাশ্মীর প্রশ্নে জাতিসংঘের মঞ্চে মালয়েশিয়া ভারতের তীব্র সমালোচনা করার পর ভারতের আমদানিকারকরা সে দেশ থেকে তেল পাম তেল আমদানি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আন্তর্জাতিক বাজারে পাম তেলের সব চেয়ে বড় ক্রেতা ভারত, তারা এখন মালয়েশিয়ার পরিবর্তে ইন্দোনেশিয়া ও অন্যান্য দেশ থেকে তা আমদানি করার কথা ঘোষণা করেছে।
অন্যদিকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ এদিন জানিয়েছেন, ভারত তাদের পণ্য বয়কট করলেও কাশ্মীর প্রশ্নে করা মন্তব্য থেকে তিনি পিছু হঠতে রাজি নন। খবর বিবিসি বাংলার।

কারণ তিনি যা বলেছেন, তা ‘মন থেকেই’ বলেছেন।

কিন্তু কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত ও মালয়েশিয়ার সংঘাত এখন কীভাবে দু’দেশের বাণিজ্য ও অর্থনীতিতেও প্রভাব ফেলছে?

কূটনৈতিকভাবে মালয়েশিয়ার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক মোটামুটি ভালই, কিন্তু গত মাসেই নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনে তা বেশ খারাপ মোড় নেয়।

সেখানে তার ভাষণে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ জম্মু ও কাশ্মীরে ভারতকে ‘আক্রমণকারী ও দখলকারী’ শক্তি হিসেবে বর্ণনা করেছিলেন।

এছাড়াও ড: মাহাথির যেভাবে পাকিস্তান ও তুরস্কের সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিবিসির ধাঁচে একটি ইসলামপন্থী চ্যানেল গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছেন, সেটাকেও ভারত ভালভাবে নেয়নি।

ফলে ইতিমধ্যেই ভারতে মালয়েশিয়ার পণ্য বর্জন করার ডাক উঠতে শুরু করেছে – ড: মাহাথির কেন ইমরান খানের সঙ্গে হাত মেলালেন, সেই প্রশ্নও উঠছে।

এরপরই ভারতে ভোজ্য তেল আমদানিকারকদের সবচেয়ে বড় সমিতি, মুম্বাইয়ের সলভেন্ট এক্সট্রাক্টর্স অ্যাসোসিয়েশন তার সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছে মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল আনা অবিলম্বে বন্ধ করতে।

বিশ্লেষকদের মতে, কাশ্মীরিদের প্রতি মালয়েশিয়ার খোলাখুলি সমর্থন পরিস্থিতিকে জটিল করে তুলেছে, যার প্রভাব পড়ছে পাম তেলকে ঘিরে দুদেশের বাণিজ্য-যুদ্ধে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar