শেরওয়ানি পরে বাল্যবিয়ে করতে এসে পুলিশের হাতে ধ’রা পড়ল বর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাল্যবিয়ে করতে এসে কারাগারে ঠাঁই হয়েছে রহমত মিয়া (২২) নামে এক যুবকের। তাকে এক মাসের কা’রাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আ’দালত। বুধবার বিকেলে সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের সুতিয়ারা গ্রামে কনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঙ্কজ বড়ুয়া এ কারাদ’ণ্ড দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত রহমত উপজেলার মজলিশপুর ইউনিয়নের তাহের মিয়ার ছেলে।

ভ্রাম্যমাণ আ’দালত সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে বুধল ইউনিয়নের সুতিয়ারা গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কিশোরী মেয়ের (১৪) সঙ্গে মজলিশপুর ইউনিয়নের দারমা এলাকার তাহের মিয়ার ছেলে রহমত মিয়ার (২২) বিয়ের আয়োজন করা হয়। বিষয়টি জানতে পেরে ভ্রাম্যমাণ আ’দালত সেখানে উপস্থিত হয়ে সেই বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন।

এ সময় অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করতে আসার দায়ে বর রহমতকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদ’ণ্ড দেয়া হয়। অপরদিকে কনেকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেয়া হবে না মর্মে পরিবারের কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়। ইউএনও পঙ্কজ বড়ুয়া জানান, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এমন অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।