ছাত্রীর গো’পনা’ঙ্গে জোঁক, দুই শিক্ষিকার কান্ড!

ডোবা থেকে কলমি শাক তুলতে নামলে ছাত্রীর গোপনাঙ্গের মুখে একটি জোঁক প্রবেশ করে। এতে তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। ঘটনার পরে ওই শিক্ষার্থীকে পাথরঘাটা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।শনিবার দুপুরে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে বরগুনার পাথরঘাটার দক্ষিণ মানিকখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

জোঁকে আক্রান্ত শিক্ষার্থী ওই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী।শিক্ষার্থীর বাবা সুমন গরালি জানান, তার পঞ্চম শ্রেণীতে পড়ুয়া মেয়েকে বিদ্যালয়ের শিক্ষিকার নির্দেশে বিদ্যালয়ের পাশে একটি ডোবায় কলমি শাক তুলতে নামে।

শাক তুলে শিক্ষিকা নাসিমা ও শেলিনা বেগমকে দিয়ে বাড়ি গেলে গোপনাঙ্গ থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে দেখতে পায় পরে সেখান থেকে একটি জোঁক বের করা হয়। ঘটনার পরই স্থানীয় বাজারে চিকিৎসা দিয়ে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্সে ভর্তি করা হয়। একদিন চিকিৎসা শেষে আজ রোববার দুপুরে ছাড়পত্র দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয় পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. হুমায়ুন কবির জানান, ঘটনাস্থল বিদ্যালয় ও ভিকটিম ছাত্রীর বাড়ি পরিদর্শন করেছি। শিক্ষকরা প্রায় শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করত বলে জানাগেছে। এ ঘটনায় প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে ১৯তারিখের মধ্য তদন্ত করে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষকে জানাবেন।