আপনারা এতদিন আঙুল চুষছিলেন: যুবলীগ চেয়ারম্যান

যুবলীগের নেতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এতদিন কেন ব্যবস্থা নেয়নি বলে প্রশ্ন তুলেছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় মিরপুরের দারুসসালাম এলাকায় গোলারটেক মাঠে ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তরের কয়েকটি ওয়ার্ডের যৌথ ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে এ প্রশ্ন তোলেন যুবলীগ চেয়ারম্যান।

এদিকে যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেপ্তারের আগে র‌্যাবের অভিযানের তোড়জোড়ের মধ্যে এমন প্রতিক্রিয়া জানান ওমর ফারুক চৌধুরী।

এ সময় তিনি বলেন, ‘গোয়েন্দা এতই যদি তৎপর হয়, এতদিন কী করেছিলেন? আপনি যদি এতই তথ্য জানেন, তথ্যগুলো এতদিন তুলে আনেননি কেন? আমি কেন জানলাম না, আমরা কেন জানলাম না?’

এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনি বলছেন ৬০টি ক্যাসিনো আছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আপনারা ৬০ জনে কি এত দিন আঙুল চুষছিলেন? তাহলে যে ৬০ জায়গায় এই ক্যাসিনো, সেই ৬০ জায়গার থানাকে অ্যারেস্ট করা হোক। সেই ৬০ থানার যে র‌্যাব ছিল, তাদের অ্যারেস্ট করা হোক।’

তিনি আরও বলেন, ‘অপরাধ করলে শাস্তির ব্যবস্থা হবে। প্রশ্ন হলো, এখন কেন অ্যারেস্ট হবে। অতীতে হলো না কেন, আপনি তো সবই জানতেন। আপনি কি জানতেন না? নাকি সহায়তা দিয়েছিলেন—সে প্রশ্নগুলো আমরা এখন তুলব। আমি অপরাধী, আপনি কী করেছিলেন? আপনি কে, আমাকে আঙুল তুলছেন?’

এ সময় উত্তেজিত হয়ে যুবলীগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমাকে অ্যারেস্ট করবেন? করেন। আমি রাজনীতি করি, ১০০ বার অ্যারেস্ট হব। আমি অন্যায় করেছি, আপনারা কী করেছিলেন? আপনি অ্যারেস্ট করবেন, আমি বসে থাকব না। আপনাকেও অ্যারেস্ট হতে হবে। কারণ, আপনিই প্রশ্রয় দিয়েছেন।’

এ সময় যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ‘ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ অত্যন্ত সুসংগঠিত একটি ইউনিট। তাদের বিরুদ্ধে এতদিন কোনো অভিযোগ এলো না, হঠাৎ কেন অভিযোগ আসল? আর অভিযোগ থাকলে এতদিন কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি?’