কন্যা শিশুকে ধ’র্ষণের ভিডিও ভাইরাল, মাতব্বর গ্রাম ছাড়া

বাংলাদেশ

hasan rafi | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:০৯ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লার মুরাদনগরে অর্থের প্রলো’ভন দেখিয়ে হতদরিদ্র পরিবারের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক কন্যা শি’শুকে ধ’র্ষণ করেছে স্থানীয় এক মাতব্বর।

উপজে’লার বাঙ্গরা বাজার থানাধীন রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউপির বাখরাবাদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। ধ’র্ষক ছিদ্দিকুর রহমান (৬৫) এবং ধ’র্ষিতা(১১) ওই গ্রামের বাসিন্দা।

গত শুক্রবার এ ঘটনা ঘটলেও স্থানীয় মাতব্বরগণ তা ধামাচাপা দিয়ে রাখে। বুধবার ওই শি’শুকে ধ’র্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

এতে এলাকায় বেশ তোলপাড় সৃস্টি হয়েছে। এদিকে ধ’র্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য স্থানীয় এক ইউপি সদস্যসহ মাতব্বররা ধ’র্ষক ছিদ্দিকুর রহমানের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ভাগবাটোয়া করেছে বলে এলাকায় গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। তবে ওই টাকা থেকে ধ’র্ষিতার পরিবারকে দেয়া হয়নি এক টাকাও।

স্থানীয়রা জানায়, গত শুক্রবার বিকেলে রামচন্দ্রপুর উত্তর ইউপির বাখরাবাদ গ্রামের জনৈক ব্যক্তির চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ুয়াকে (১১) নানা ছলে-কৌশলে এবং বিশ টাকা দেয়ার প্রলো’ভন দেখিয়ে বাড়ির পাশের একটি জঙ্গলে নিয়ে যায় গ্রামের মাতব্বর ছিদ্দিকুর রহমান। সেখানে নিয়ে তাকে ধ’র্ষণ করে। তবে কে বা কাহারা ঘটনাটি দেখে অ’জ্ঞাতস্থান থেকে ধ’র্ষনের ভিডিও চিত্র ধারণ করে।

এ ভিডিও দেখিয়ে ধ’র্ষকের কাছ থেকে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের যোগশাজসে গ্রামের মাতব্বরগণ ধ’র্ষক ছিদ্দিকুর রহমানের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় বলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। ধ’র্ষণের এ ভিডিও বুধবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

ফেসবুকে এ ভিডিও দেখে ধ’র্ষক ছিদ্দিকুর রহমান গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি মিজানুর রহমান এবং এসআই নুরুল আলম ওই গ্রামে গিয়ে ধ’র্ষিতাকে উ’দ্ধার করে থানায় এনে লিখিত অ’ভিযোগ গ্রহণ করে। পরে ধ’র্ষিতার মা বাদি হয়ে ধ’র্ষণ মা’মলা দায়ের করে।

ধ’র্ষিতার ভাই জানান, ঘটনার পর মাতব্বরগণ আমাদেরকে কিছু টাকা দিতে চেয়েছিল কিন্তু আম’রা তা গ্রহণ করিনি। আম’রা ধ’র্ষকের উপযুক্ত শা’স্তি দাবি করছি।

এ বিষয়ে বাঙ্গরা বাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, ধ’র্ষকের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার বিষয়ে সুনির্দিস্ট কোন অ’ভিযোগ কিংবা তথ্য প্রমাণ পাইনি, মাতব্বরগণ বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেছিল কিন্তু খবর পেয়ে অ’ভিযোগ ছাড়াই আম’রা ঘটনাস্থলে গিয়ে ভিকটিমকে উ’দ্ধার করে থানায় এনে অ’ভিযোগ গ্রহণ করেছি। ভিকটিমকে মেডিকেল পরীক্ষা করা হবে। তিনি বলেন, কোন মাতব্বর এর সাথে জ’ড়িত থাকলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে, লম্পট ধ’র্ষক ছিদ্দিকুর রহমানকে গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • *
  • এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আরও খবর

    kidarkar
    kidarkar