নতুন এই ৩ ক্রিকেটার যুক্ত হচ্ছেন বাংলাদেশ দলে

সময়টা ভালো যাচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। আয়ারল্যান্ড সফরে ভালো করার পর বিশ্বকাপ মঞ্চেও প্রথম ম্যাচে দাপট দেখায় বাংলাদেশ। তবে শেষ ম্যাচগুলোতে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ছাড়া ব্যাটে-বলে আর কেউ তেমন জ্বলে না ওঠায় সেমিফাইনালের ওঠার স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ হয় টিম টাইগারের।

দেশে ফিরে শ্রীলংকা সফরে গিয়েও সেই একই বাংলাদেশকে দেখেছে ক্রিকেটবিশ্ব। সাকিববিহীন দলকে নিজেদের মাটিতে হোয়াইটওয়াশ করেছে মালিঙ্গারা। বিশ্বকাপের মতো সেই সিরিজেও রান খরায় ভুগেছে তামিম, মিঠুন, সাব্বির ও মোসাদ্দেকরা।

টাইগারদের পরবর্তী লক্ষ্য আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি টেস্ট ও জিম্বাবুয়ে-আফগানিস্তানের সঙ্গে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ।আসন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে আগামী ১৯ আগস্ট থেকে ক্রিকেটারদের নিয়ে ক্যাম্প হবে। কিন্তু এর আগেই প্রায় নিশ্চিত বিশ্রামে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল।

যে কারণে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে নতুন কোনো জুটি। জানা গেছে, জয়ে ফিরতে এই সিরিজ সামনে রেখে একাদশে বড় চমক দেখা যেতে পারে। তাই কন্ডিশনিং ক্যাম্পে রাখা হতে পারে ৩৫ জনের মতো ক্রিকেটার! আর এই ৩৫ ক্রিকেটারের মধ্যে থেকেই নতুন ৩ জন ক্রিকেটারের জায়গা হতে পারে মূল একাদশে। সিরিজে ডিবিও হতে পারে তাদের।

সূত্র জানায়, ওই ৩ ক্রিকেটারের একজন হলেন সাইফ হাসান। যিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে বেশ ভালো খেলেছেন। অনুর্ধ্ব-১৯ দলের সাবেক অধিনায়কও ছিলেন তিনি। টপ অর্ডারে ব্যাট করে দীর্ঘ ইনিংস খেলার সামর্থ রয়েছে তারা। তাই আফগানিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট ম্যাচে একাদশে তাকে দেখা যেতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

এর পর যে দুই জনের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, নাইম শেখ আর আফিফ হোসেন ধ্রুব। বাংলাদেশের জার্সি গায়ে টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয়েছে আফিফ হোসেন ধ্রুব। একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জমেছে তার ঝুলিতে। নাইম ও আফিককে সম্ভাবনাময় ও প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে দেখছেন জাতীয় দলের সঙ্গে যুক্ত কর্মকর্তারা।

সাম্প্রতিক সময় দেশে এবং বিদেশে রান করছেন তারা। সে বিষয়টি মাথায় রেখে নাঈম শেখ ও আফিফকে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিশেষ বিবেচনায় রাখা হতে পারে। জানা গেছে, এ দুই তরুণ তুর্কিকে দেশের মাটিতে সেপ্টেম্বরে তিন জাতি টি-টোয়েন্টি আসরেও দেখা যেতে পারে