ছবি তুলছিলেন বাবা, নদীতে পড়ে হারিয়ে গেল রাবেয়া

ঈদের আনন্দ উপভোগ করার জন্য পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে বের হয়েছিল শি’শু রাবেয়া (৫)। নদীতে থাকা বালু উত্তোলনের বলগেটে দাঁড় করিয়ে তার বাবা ছবি তুলছিলেন।

হঠাৎ নদীতে পরে নি’খোঁজ হয় রাবেয়া। এ ঘটনার ১৮ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও তার সন্ধান মেলেনি।

গতকাল বুধবার বিকেলে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজে’লার নিকরাইল ইউনিয়নের ল্যাংড়া বাজার এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। নি’খোঁজ রাবেয়ার বাবার নাম এরশাদ আলী। তারা উপজে’লার সিরাজকান্দি গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এরশাদ আলী তার মেয়ে রাবেয়াকে বালুবাহী ভলগেটের উপর দাঁড় করিয়ে ছবি তুলছিলেন। এ সময় নদীতে পড়ে যায় রাবেয়া।

নদীতে বালু উত্তোলনের বলগেট এবং স্রোত বেশি থাকায় পরিবারের সদস্যরা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি। পরে তারা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক মোহাম্ম’দ আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘খবর পাওয়া মাত্রই টাঙ্গাইল ও ভূঞাপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা শি’শুটিকে উ’দ্ধারের আপ্রাণ চেষ্টা চালায়। তবে নদীতে বালু উত্তোলনের বলগেট থাকায় উ’দ্ধার কাজে বিঘ্ন ঘটে। বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত উ’দ্ধার কাজ চালিয়েও নিখোঁজ শি’শুটির সন্ধান মেলেনি।’