স্বাধীনতা দিবসে ভারতের আরও এক রাজ্যর স্বাধীনতা দাবি

মহাসমা’রোহে ভারতে পালিত হচ্ছে দেশটির ৭৩তম স্বাধীনতা দিবস। তবে এরইমধ্যে ভারতের উত্তর-পূর্বের রাজ্য নাগাল্যান্ডের স্বতন্ত্র অধিবাসী ও উপজাতিরা দিবসটি উদযাপন করছেন তাদের নিজস্ব রীতিতে।

‘নাগাদের পতাকা’ উড়িয়ে ‘নিজেদের স্বাধীনতা দিবস’ তারা পালন করছেন বলে জানানো হয়েছে ইন্ডিয়া টুডের খবরে।

নাগাল্যান্ডের প্রভাবশালী নাগা স্টুডেন্টস ফেডারেশন (এনএসএফ) বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) নাগাল্যান্ড ও মিয়ানমা’রের কিছু জায়গায় নিজস্ব জাতীয় পতাকা উড়ানো ও ‘৭৩তম নাগা স্বাধীনতা দিবস’ উদযাপনের এই কর্মসূচি পালন করে।

প্রসঙ্গত, চলতি মাসে জম্মু ও কাশ্মিরের সাংবিধানিক সায়ত্তশাসন ধারা ৩৭০ কেড়ে নেওয়ার বিষয়টি ভারতের উত্তর–পূর্ব রাজ্যগুলোর জন্য ‘রেড অ্যালার্ট’ হিসেবে ভাবা হচ্ছে। তবে নাগাল্যান্ডের নতুন গভর্নর আর এন রবি অধিবাসীদের এই নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে না করেছেন। তার মতে ৩৭১ (এ) ধারা বাতিল হবে না। নাগাল্যান্ড ১৯৬৩ সালে রাজ্য ম’র্যাদা পায়।

যদিও নাগাদের স্বাধীনতা দিবস পালন নতুন কিছু নয়। ১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্ট রাজ্যটির রাজধানী কোহিমাতে তাদের পতাকা উত্তোলন করে বিভিন্ন নাগা সম্প্রদায়। ব্রিটিশদের শাসন থেকে মুক্তি উদযাপন করতে এখনও তা পালন করা হয়। তবে অ’তীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে এবার এভাবে স্বাধানীতা দিবস উদযাপনের গুরুত্ব ভিন্ন।

এনএসএফ প্রেসিডেন্ট নিনোতো আওমি যদি বলেছেন, সকল নাগা অধ্যুষিত এলাকায় পতাকা উড়ানো রাজনৈতিক কোনো ইস্যু নয়। আম’রা ভারতের বি’রুদ্ধে নয় বরং আমাদের স্বতন্ত্র সংস্কৃতি, ইতিহাস ও অধিকারের স্বপক্ষে দিনটি উদযাপন করছি।

নাগাল্যান্ডের রাজ্য সরকার ১১টি জে’লায় এনএসএফকে সতর্ক করে বলেছিল, যাতে বেআইনি ও অনাকাঙ্ক্ষিত কিছু না ঘটে। সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে।

ভারতে মিজো’রাম, নাগাল্যান্ড ও আসামের কিছু অংশ, মণিপুর ও মেঘালয়ের বিভিন্ন অধিবাসীদের স্বাতন্ত্র্য রক্ষায় জমি হস্তান্তরসহ বেশকিছু বিধিনিষেধ রয়েছে। যেমনটি ছিল জম্মু ও কাশ্মিরেও। নাগাল্যান্ডের বিভিন্ন জাতীয়তাবাদী দল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আরও স্বায়ত্তশাসন দাবি করে আসছে। সেখানে প্রায়ই হচ্ছে আঞ্চলিক সংঘাত।