কেবল কাশ্মীর নয়, মোদির লক্ষ্য পাকিস্তান দখল করা

জম্মু ও কাশ্মীরের নেতা ও ভারতের প্রশাসন ক্যাড়ার-(আইএএস) এ প্রথম হয়েও চাকরি ছেড়ে রাজনীতিতে আসা শাহ ফয়জলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে, তিনি বিদেশে যাওয়ার বিমান ধরতে গেলে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় দিল্লিতে। সেখান থেকে আবার কাশ্মীরে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

আইএএস থেকে রাজনীতিতে আসা ফয়জল ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করার সিদ্ধান্তের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কড়া সমালোচনা করেছেন। মঙ্গলবার তিনি টুইট করে রাজনৈতিক অধিকার ফিরে পেতে কাশ্মীরে অহিংস রাজনৈতিক গণ আন্দোলনের ডাক দেন।

তিনি টুইট করেন, ‘‘রাজনৈতিক অধিকার ফিরে পেতে কাশ্মীরের প্রয়োজন একটি দীর্ঘ, টেকসই, অহিংস রাজনৈতিক গণ আন্দোলন। ৩৭০ ধারারা বিলুপ্তি মূলধারাকে শেষ করে দিয়েছে। সাংবিধানপন্থীরা চলে গিয়েছেন। সুতরাং এখন আপনি হয়, তাবেদার নয়তো স্বাধীনতাকামী হতে পারেন। কোনও ধূসর পথ নেই।”

৩৫ বছরের ফয়জল একজন এমবিবিএস। তিনি আইএএস ছাড়েন গত জানুয়ারিতে। কাশ্মীরে দুর্বলের হত্যা এবং ভারতীয় মুসমিলদের প্রান্তিকীকরণ-এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদেই এই পদক্ষেপ নেন তিনি।

আরও পড়ুন: কোরবানির মহিষের গুঁতোয় ১১ জন আহত, নিবৃত্ত করতে পুলিশের গুলি

তিনি জানিয়ে দেন, ‘‘এই মুহূর্তে আমি চাকরি ছাড়ছি। এরপর আমি কী করব, তা নির্ভর করছে কাশ্মীরের নাগরিকরা আমাকে কী করতে বলেন তার উপর। বিশেষ করে তরুণরা।” ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সকলের কাছ থেকে আইডিয়া চেয়েছিলেন তিনি।