দৈনন্দিন জীবনে খরচ কমানোর সহজ ৭ উপায়

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ৫২ বার পড়া হয়েছে
shopping

অনেকেই ভাবেন খরচ কমানোর উপায় হলো সবসময় দোকানপাটের বিশেষ ছাড় বা ক্লিয়ারিং থেকে জিনিসপত্র কেনা অথবা দৈনিক মাটির ব্যাংকে টাকা জমানো। অথচ কয়েকটি সহজ কাজে প্রতিদিনই আপনি খরচ বাঁচাতে পারবেন। জেনে নিন এমন ৭টি উপায়-

১) নিজেই আয়োজন করুন: ভাবুন তো, প্রতিমাসে বন্ধুদের সাথে বাইরে খেতে গেলে কী পরিমাণ টাকা খরচ হয় আপনার? নিঃসন্দেহে অনেকগুলো টাকা বের হয়ে যায়। তা না করে আপনি নিজের বাড়িতেই পটলাক বা ওয়ান ডিশ পার্টির আয়োজন করতে পারেন। প্রত্যেকে একটি খাবার রান্না করে নিয়ে এলে বাইরে খাওয়ার চেয়ে অনেক কম খরচ হয়, একইসাথে আড্ডাও দেওয়া হবে।

২) হ্যাঙ্গার টেস্ট: আপনার কাপড়চোপড় ‘হ্যাঙ্গার টেস্ট’ করুন। সব কাপড় হ্যাঙ্গারে করে ঝুলিয়ে রাখুন, হ্যাঙ্গারের মাথাটি বাইরের দিকে থাকবে। একটি পোশাক ব্যবহারের পর হ্যাঙ্গারের মুখ উল্টোদিকে ঝুলিয়ে দিন। এক মাসের পর দেখুন, যে কাপড়গুলোর হ্যাঙ্গারের মাথা বাইরের দিকে আছে, অর্থাৎ এক মাসে এক বারও ব্যবহার হয়নি, সেগুলো দান করে দিন, কারও সাথে এক্সচেঞ্জ করুন অথবা সেকেন্ড হ্যান্ড পোশাকের দোকানে বিক্রি করে দিন।

৩) সময় বুঝে শপিং করুন: বছরের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দোকানে সেল দেওয়া হয়। এ সময়ে খুব কম দামে কিছু ভালো পণ্য পাওয়া যায়। কোন সময়ে সেল দিচ্ছে তা খেয়াল রাখুন এবং সেল শুরুর প্রথম দিকেই কেনাকাটা করুন। এতে পছন্দসই পণ্য কিনতে পারবেন অনেক কম দামে।

৪) তালিকা তৈরি করুন: শপিংয়ে যাবার আগে কী কী কিনতে চান তার তালিকা করুন। এরপর তালিকাটি খুঁটিয়ে দেখুন ও ভাবুন, এর সবই কী আমার জন্য দরকারি? তালিকা তৈরির পরেই কেনাকাটা শুরু করবেন না। কিছুদিন অপেক্ষা করুন। অনেককিছু কেনার ইচ্ছে চলে যাবে। তালিকা ছাঁটাই করুন। দেখবেন শুধু সেসব জিনিসই আছে যা আপনার সত্যিই প্রয়োজন। শুধু কেনাকাটা নয় বরং ডিশ কানেকশন, জিম মেম্বারশিপ, প্রতিদিন সকালে বা দুপুরে পান করা দামি এক কাপ কফি- এগুলোও বাদ দিতে পারেন একই উপায়।

৫) কম দামি দোকান থেকে কিনুন: ইদানিং অনেকেই সুপার শপ থেকে সব কেনাকাটা করেন, কারণ একই জায়গায় প্রয়োজনীয় সব জিনিস পাওয়া যায়। এতে খরচ বেশি হলেও অনেকেই গা করেন না। এর বদলে আপনি কিন্তু স্থানীয় মুদি দোকান, কাঁচাবাজার থেকেই অনেক কম দামে এবং টাটকা পণ্য কিনতে পারেন। এছাড়া কোন দোকানটিতে কম খরচে ভালো জিনিস পাওয়া যায় সেটাও বের করার চেষ্টা করুন। এতে অনেক খরচ বেঁচে যাবে।

৬) পানির বোতল কিনুন: না, সাধারণ মিনারেল ওয়াটারের বোতল নয়। বরং বারবার ব্যবহার করা যায় এমন একটি পানির বোতল কিনে রাখুন। বাইরে বের হবার সময়ে এতে পানি ভরে সাথে নিন। এতে বাইরে থেকে বারবার মিনারেল ওয়াটার কেনার প্রয়োজন হবে না। এই কাজটি গরমকালে অনেক খরচ বাঁচাবে আপনার।

৭) নিজের জিনিসের যত্ন নিন: বর্তমানে আমরা অনেক দামি দামি জিনিস ব্যবহার করি। যেমন ল্যাপটপ, স্মার্টফোন, ট্যাব, দামি মিউজিক সিস্টেম বা হেডফোন। এসব গ্যাজেটের কোনো ক্ষতি হলে তা সারানোটা অনেকটাই খরচের ব্যাপার। তাই খরচ কম রাখতে নিজের জিনিসের যত্ন নিন। এছাড়া ভালো অবস্থায় থাকলে আপনি ভবিষ্যতে তা ভালো দামে বিক্রিও করে দিতে পারেন।

সূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com
Developed By Kidarkar IT Solution