বিশ্বকাপে যাঁর গায়ে মূত্রত্যাগ করেছিল গারিঞ্চার কুকুর!

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় সোমবার, ১১ জুন, ২০১৮
  • ৫০ বার পড়া হয়েছে

১৯৬২ বিশ্বকাপ চলছে তখন, চিলিতে। কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি দুই পরাশক্তি ব্রাজিল আর ইংল্যান্ড। তবে ম্যাচ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই খেলা থামাতে হলো। মাঠে যে ঢুকে পড়েছিল অযাচিত এক অতিথি, একটা কুকুর।

কিছুক্ষণের জন্য একে অপরকে ট্যাকল করা বাদ দিয়ে গারিঞ্চা, গ্রিভসরা নেমে পড়লেন সেই কুকুরকে আটকানোর জন্য! ব্রাজিলের গোলরক্ষক জিলমার আর গারিঞ্চা আটকাতে পারলেন না কুকুরটাকে, সবার পায়ের ফাঁক গলে বেড়িয়ে যাচ্ছিল কুকুরটি! অবশেষে ইংল্যান্ড স্ট্রাইকার জিমি গ্রিভস আসলেন ত্রাতা হয়ে।

এমনিতেই কুকুর পছন্দ করতেন জিমি গ্রিভস, তাই কুকুরটাকে মানিয়ে আদর করে কোলে নিতে বেশিক্ষণ লাগল না তাঁর। গ্রিভসের এই কীর্তি দেখে মাঠভরা দর্শক হাততালি দিয়ে উঠল! কিন্তু বিধি বাম, গ্রিভসের আদর পেয়ে কুকুরটা যেন একটু অকৃতজ্ঞই হয়ে উঠল, গ্রিভসের গায়ে মূত্রত্যাগ করে দিল!

তখন জার্সি পরিবর্তন করার নিয়ম ছিল না। অগত্যা জিমি গ্রিভসকে ওই কুকুরের মূত্রের গন্ধ লাগা জার্সি পরেই খেলতে হলো পুরো ম্যাচ! সেই ম্যাচটা ইংল্যান্ড জিততেও পারেনি, ৩-১ গোলে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় তাঁরা। মানে সবদিক দিয়ে ভুলে যাওয়ার মতো একটা ম্যাচ ছিল সেটা, ইংল্যান্ডের ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা জিমি গ্রিভসের জন্য!

শোনা যায়, পরে বিশ্বকাপ জয়ের পর সেই কুকুরটা ব্রাজিল দল নিয়ে গিয়েছিল দেশে। লটারির মাধ্যমে কুকুরটা বুঝে নিয়েছিলেন ব্রাজিল তারকা গারিঞ্চা! ব্রাজিলের মানুষের কাছে গ্রিভস এখনো সে ব্যক্তি, যার গায়ে মূত্রত্যাগ করেছিল গারিঞ্চার কুকুর!

বন্ধুকে সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও যা পড়ে দেখতে পারেন
Copyright © 2021 All rights reserved www.mediamorol.com
Developed By Kidarkar IT Solution